নারীর ক্ষমতায়ন

যে জেলার শীর্ষ সব পদে নারী

সিএইচটি-অবজারভার: মঙ্গলবার ০৮.০৯.২০১৫ :

সূত্র: প্রথম আলো :

নরসিংদী জেলা জজ আদালত ভবনে গতকাল বিকেলে মুখ্য বিচারিক হাকিম শামীমা আফরোজের (বাঁ থেকে চতুর্থ) পরিচিতি সভায় (বাঁ থেকে) জেলা প্রশাসক (ভারপ্রাপ্ত) সুরাইয়া বেগম, নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক শামীম আহাম্মদ, জেলা ও দায়রা জজ বেগম ফাতেমা নজীব এবং সিভিল সার্জন পুতুল রায়। এ পদগুলোর পাশাপাশি পুলিশ সুপারসহ জেলার বেশির ভাগ গুরুত্বপূর্ণ পদই এখন অলংকৃত করছেন নারীরা l ছবি: প্রথম আলো

নরসিংদী জেলা প্রশাসকের চলতি দায়িত্ব পেয়েছেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) সুরাইয়া বেগম। আর তখনই তৈরি হলো একটি বিশেষ মুহূর্ত। দেখা গেল, এখানে জেলা ও দায়রা জজ, পুলিশ সুপার, সিভিল সার্জন, নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক, মুখ্য বিচারিক হাকিম—জেলার এসব গুরুত্বপূর্ণ শীর্ষ পদে নেতৃত্ব দিচ্ছেন নারী কর্মকর্তারা।
নরসিংদীর জেলা প্রশাসক আবু হেনা মোরশেদ জামান ১০ দিনের প্রশিক্ষণে ভারতে গেছেন। গত রোববার থেকে জেলা প্রশাসকের চলতি দায়িত্ব পেয়েছেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক সুরাইয়া বেগম (উপসচিব)।
প্রশাসনের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিরা বলছেন, জেলা পর্যায়ে একসঙ্গে এতগুলো শীর্ষ পদে নারীর নেতৃত্বদানের ঘটনা বিরল। জেলা পর্যায়ে জেলা ও দায়রা জজ, জেলা প্রশাসক ও পুলিশ সুপারের পদটি হলো শীর্ষ পদ। তাঁরাই মূলত একটি জেলায় সরকারি কর্মকাণ্ডের নেতৃত্ব দেন। আর এ মুহূর্তে নরসিংদী জেলায় এ তিনটি পদেই দায়িত্ব পালন করছেন তিন নারী।
বিষয়টিকে ইতিবাচক হিসেবে দেখছেন স্থানীয় বিভিন্ন পর্যায়ের ব্যক্তিরা। জানতে চাইলে নরসিংদীর আবদুল কাদির মোল্লা সিটি কলেজের অধ্যক্ষ মশিউর রহমান মৃধা বিষয়টিকে যুগান্তকারী হিসেবে উল্লেখ করেন। প্রথম আলোকে তিনি বলেন, নারী ও পুরুষ এখন আর আলাদা করে দেখার সুযোগ নেই। কে কতটা মেধাবী, দায়িত্বশীল ও সৃজনশীল, সেটাই মূল বিষয়। নারীরা ইতিমধ্যে বিভিন্ন খাতে কাজের স্বাক্ষর রেখেছেন। তিনি বলেন, নরসিংদীর শীর্ষ নারী কর্তারা নিজ নিজ ক্ষেত্রে দায়িত্ব যদি সুচারুভাবে পালন করতে পারেন, তাহলেই নারীর ক্ষমতায়ন দীর্ঘস্থায়ী ও সুদূরপ্রসারী হবে।
বর্তমানে নরসিংদীর জেলা ও দায়রা জজের দায়িত্বে আছেন বেগম ফাতেমা নজীব। তিনি গত ২৬ এপ্রিল নরসিংদীতে যোগ দিয়েছেন। এ ছাড়া গত বছরের ২৫ মার্চ থেকে নারী ও শিশু নির্যাতন ট্রাইব্যুনালের বিচারকের দায়িত্ব পালন করছেন শামীম আহাম্মদ এবং গত ৩১ আগস্ট থেকে মুখ্য বিচারিক হাকিমের দায়িত্বে আছেন শামীমা আফরোজ।
গত বছরের ৩১ ডিসেম্বর থেকে নরসিংদীর পুলিশ সুপার হিসেবে কাজ করছেন আমেনা বেগম। এর আগে তিনি রাঙামাটির পুলিশ সুপারের দায়িত্বে ছিলেন।
জেলায় স্বাস্থ্য বিভাগের শীর্ষ পদ সিভিল সার্জন। গত বছরের ২৮ মে থেকে এ পদে আছেন চিকিৎসক পুতুল রায়।
এ ব্যাপারে উচ্ছ্বাস প্রকাশ করে পুলিশ সুপার আমেনা বেগম প্রথম আলোকে বলেন, নরসিংদী তথা সারা দেশের নারীদের জন্য এটি একটি অনন্য ঘটনা। এ জেলায় সরকারের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিচার, প্রশাসন, স্বাস্থ্য ও পুলিশ বিভাগে একসঙ্গে নারীর ক্ষমতায়ন নিঃসন্দেহে প্রশংসনীয়। এটি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নারীর ক্ষমতায়ন বাস্তবায়নের একটি উদাহরণ। এতে ভবিষ্যতে নারী কর্মকর্তারা একজন অফিসপ্রধান হিসেবে রাষ্ট্র পরিচালনায় অগ্রণী ভূমিকা পালন করতে পারবেন।
জেলা প্রশাসকের দায়িত্ব পালনকারী সুরাইয়া বেগম বলেন, এ ধরনের পদায়ন সব স্তরের নারীদের আত্মবিশ্বাসী ও আত্মমর্যাদাশীল করে তুলবে। পাশাপাশি নারীর নিরাপত্তা নিশ্চিত করবে।

খবরটি শেয়ার করুন

Post Comment