প্রেস বিজ্ঞপ্তি

উন্নয়ন বোর্ডের আইসিডিপি প্রকল্পের অবহিতকরণ ও সমন্বয় সভা অনুষ্ঠিত

প্রেস বিজ্ঞপ্তি

Bketu
পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ডের সমন্বিত সমাজ উন্নয়ন প্রকল্প (আইসিডিপি)-৩য় পর্যায় এর প্রকল্প সম্পর্কে অবহিতকরণ সভা ও জেলা সমন্বয় সভা ২১ সেপ্টেম্বর সোমবার সকালে রাঙ্গামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদের সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত হয়েছে।

আইসিডিপি প্রকল্পের জেলা প্রকল্প ব্যবস্থাপক মিন্টু বিকাশ চাকমার পরিচালনায় অনুষ্ঠানে রাঙ্গামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান বৃষ কেতু চাকমা প্রধান অতিথি হিসেবে এবং বিশেষ অতিথি হিসেবে পরিষদের মুখ্য নির্বাহী কর্মকর্তা এস এম জাকির হোসেন, স্থানীয় সরকার বিভাগের ডিডিএলজি মো: মাজেদুর রহমান উপস্থিত ছিলেন। অবহিতকরণ সভায় রাঙ্গামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদের সদস্যবৃন্দ যথাক্রমে অংসুইপ্রু চৌধুরী, জেবুন্নেসা রহিম, ত্রিদিব কান্তি দাশ, সাধন মনি চাকমাসহ অন্যান্য সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন। সদস্যবৃন্দ ছাড়াও ইউনিসেফের মংক্রাই মারমা’সহ জেলা প্রাথমিক শিক্ষা, পরিবার পরিকল্পনা, শিশু একাডেমী, সমাজ সেবা, জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল, জেলা তথ্য অফিসের বিভাগীয় কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

আইসিডিপি প্রকল্পের প্রশাসন ও পরিকল্পনা কর্মকর্তা মো: জানে-ই আলম সভায় প্রজেক্টরের মাধ্যমে আইসিডিপি প্রকল্পের চলমান কার্যক্রমের উপর একটি প্রতিবেদন উপস্থাপন করে বলেন, পার্বত্য চট্টগ্রাম এলাকায় ৩৪৫৭টি গ্রামের ১ লক্ষ ৬০ হাজার পরিবারকে মৌলিক সেবা প্রদানের সাথে সম্পৃক্ত করণের লক্ষ্যে ওয়ান ষ্টপ সেবা বিতরণ কেন্দ্র হিসেবে ৪ হাজার পাড়াকেন্দ্র স্থাপনের মাধ্যমে একজন প্রশিক্ষিত পাড়াকর্মী ২-৫ বছর বয়সের প্রকল্পভুক্ত ১ লক্ষ ৫২ হাজার শিশুদের ২ বছর পর্যন্ত শিক্ষা দান, শিশু মহিলাদের টিকা গ্রহণ, শিশুদের প্রাক-শৈশব যত্ন, স্বাস্থ্য পরিচর্যা, বিশুদ্ধ পানি পান, স্বাস্থ্য সম্মত পায়খানা ব্যবহার, জন্ম নিবন্ধন, শিশুর শারিরীক শাস্তি নিরোধ, বাল্য বিবাহ, শিশু শ্রম বন্ধ করা, আয়োডিনযুক্ত লবন ব্যবহার, আয়রন টেবলেট গ্রহণ, ভিটামিন এ ক্যাপসুল গ্রহণ  ইত্যাদি সচেতনতামূলক কাজ সম্পাদন করছে।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে রাঙ্গামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান বৃষ কেতু চাকমা বলেন, পাহাড়ের পিছিয়ে পরা শিশু ও নারীদের শিক্ষা, স্বাস্থ্য ও সামাজিক উন্নয়নে সবাইকে এগিয়ে আসতে হবে। তিনি বলেন, পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ড ইউনিসেফের সহায়তায় সমন্বিত সমাজ উন্নয়ন প্রকল্পের মাধ্যমে পার্বত্য অঞ্চলের প্রত্যন্ত অঞ্চলের পিছিয়ে পড়া মা ও শিশুদের সার্বিক উন্নয়নে যে কাজ করছে তা সত্যিই প্রশংসনীয়। আগামীতে পাহাড়ের প্রতিটি শিশু যেন প্রাক-প্রাথমিক শিক্ষা গ্রহণে সরকারের পাশাপাশি আইসিডিপির অধীনে এসে শিক্ষা গ্রহণ করে সে বিষয়ে দৃষ্টি রাখার জন্য সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের আহ্বান জানান। তিনি বলেন, শিশুরা শুধু স্কুলে ভর্তি হলে হবেনা, তাদের ঝড়ে পড়া রোধ করতে শিক্ষকদের পাশাপাশি অভিভাবকদের সচেতন হতে হবে। শিক্ষাকদের সঠিকভাবে মনিটরিং এর মাধ্যমে স্কুল পরিচালনার পাশাপাশি আগামীতে প্রাথমিক শিক্ষা বিভাগের সাথে সমন্বয় রেখে আইসিডিপি’র পরবর্র্তী কাজগুলো পরিচালনা করারও পরামর্শ দেন।

তারিখ : ২১/০৯/২০১৫

(অরুনেন্দু ত্রিপুরা)
জনসংযোগ কর্মকর্তা
রাঙ্গামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদ

খবরটি শেয়ার করুন

Post Comment