ভুয়া তথ্য দিয়ে সহকারী শিক্ষকের চাকুরী নেয়ার অভিযোগ

সিএইচটি-অবজারভার.কম: বৃহস্পতিবার ২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৫ :

Complainসম্প্রতি রাঙ্গামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদের অধীনে প্রাক-প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক পদে স্থায়ী বাসিন্দার ভুয়া সনদপত্র দিয়ে নূসরাত জাহান নিশু নামের এক মহিলা চাকুরি নেয়ার অভিযোগ উঠেছে। ইতোমধ্যে তার চাকুরি বাতিলের দাবীতে রাঙ্গামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদ চেয়ারম্যানের বরাবরে আবেদন জানিয়েছেন কাপ্তাই উপজেলার রাইখালী ইউনিয়ন শাখার আওয়ামীলীগ-যুবলীগ-ছাত্রলীগের নেতৃবৃন্দ।

গত ১৫ সেপ্টেম্বর রাঙ্গামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদ সদস্য থোয়াই চিং মারমার মাধ্যমে জেলা পরিষদ চেয়ারম্যানের কাছে দেওয়া আবেদন পত্রে বলা হয়েছে, রাঙ্গামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদের অধীনে ৪ সেপ্টেম্বর অনুষ্ঠিত প্রাক-প্রাথমিক বিদ্যালয়ে সহকারী শিক্ষক নিয়োগের লিখিত পরীক্ষায় পিতা শাহ মোহাম্মদ সোলেয়মান, গ্রাম খস্তাকাট, ডাকঘর রাইখালী বাজার কাপ্তাই উপজেলার ভুয়া ঠিকানা দিয়ে নূসরাত জাহান শিশু (রোল নং-কাপ-০২৪) অংশ গ্রহণ করেন। লিখিত ও মৌখিক পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়ে তিনি নারানগিরি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে সহকারী শিক্ষক পদে যোগদান করেন।

আবেদনপত্রে সহকারী শিক্ষক পদে নিয়োগ পাওয়া নূসরাত জাহান নিশু রাইখালী ইউনিয়নের স্থায়ী বাসিন্দা নন এবং এলাকায় বসবাস করেন না দাবী করে  বলা হয়, নূসরাত জাহান নিশু ২নং রাইখালী ইউপি সদস্য আবুল হাসেমের ঘনিষ্ঠ আত্বীয় হওয়ায় এবং ২নং রাইখালী ইউপি চেয়ারম্যান অংসি মারমার যোগসাজেশে কৌশলে স্থায়ী বাসিন্দার সনদপত্র সংগ্রহ করে সহকারী শিক্ষক পদে আবেদন করেন। ভূয়া ঠিকানা ব্যবহার করে চাকুরী পাওয়ার ফলে স্থানীয় বাসিন্দারা চাকুরী থেকে বঞ্চিত হয়েছেন। জরুরীভাবে তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করে নিয়োগ বাতিলের দাবী জানানো হয় আবেদনপত্রে। আবেদনপত্রে স্বাক্ষর করেন আওয়ামী লীগের ২নং রাইখালী ইউনিয়ন শাখার সাধারণ সম্পাদক মো: ইউসুফ তালুকদার, ছাত্রলীগের রাইখালী শাখার সভাপতি মো: সালাউদ্দিন, সাধারণ সম্পাদক মো: মিজানুর রহমান, যুগ্ম সম্পাদক মো: রহমত উল্লাহ ও যুবলীগের রাইখালী শাখার সভাপতি বিপ্লব সেন লাতু।

রাঙ্গামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদের সদস্য থোয়াইচিং মারমার সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, অভিযোগের আবেদন পত্রটি জেলা পরিষদ চেয়ারম্যানের নজরে এসেছে। অভিযোগটির বিষয়ে তদন্ত  করে দেখা হচ্ছে।

খবরটি শেয়ার করুন

Post Comment