বাঘাইছড়িতে আরাঙ প্রকাশিত ‘আগপাদা’ বইয়ের মোড়ক উন্মোচন

সিএইচটি-অবজারভার.কম : শনিবার ০৩ অক্টোবর ২০১৫ :

Arang

রাঙ্গামাটি জেলার বাঘাইছড়ির সাহিত্য ও সাংস্কৃতিক সংগঠন আরাঙ এর প্রথম প্রকাশনা “আগপাদা” বই এর মোড়ক আজ ০৩ অক্টোবর শনিবার আনুষ্ঠানিকভাবে উন্মোচন করা হয়েছে।

রূপালী উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে অনুষ্ঠিত বইয়ের মোড়ক উন্মোচন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন রাঙ্গামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান বৃষ কেতু চাকমা। আরাঙ-এর সভাপতি ও কাচালং ডিগ্রী কলেজের সহকারী অধ্যাপক লালন বিহারী চাকমার সভাপতিত্বে আয়োজিত অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন জেলা পরিষদের সদস্য সবীর কুমার চাকমা, বাঘাইছড়ি উপজেলা পরিষদের প্রাক্তন চেয়ারম্যান সুদর্শন চাকমা, কাচালং ডিগ্রী কলেজের উপাধ্যক্ষ দেব প্রসাদ দেওয়ান, বাঘাইছড়ি প্রেস ক্লাবের সভাপতি দীলিপ কুমার দাশ, মারিশ্যা ইউপি চেয়ারম্যান তন্টু মনি চাকমা, বাঘাইছড়ি ইউপি চেয়ারম্যান অলিভ চাকমা, রূপকারী ইউপি চেয়ারম্যান পারদর্শী চাকমা, বঙ্গলতলী ইউপি চেয়ারম্যান তারুচি চাকমা ও বাঘাইছড়ি কাঠ ব্যবসায়ী ও জোত মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক গিয়াস উদ্দিন মামুন। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি বাঘাইছড়ির সাহিত্য ও সাংস্কৃতিক সংগঠন আরাঙ এর প্রথম প্রকাশনা “আগপাদা” বই এর মোড়ক আনুষ্ঠানিকভাবে উন্মোচন করেন। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি আরঙ এর পরবর্তী প্রকাশনা ও সাংস্কৃতিক সরঞ্জাম ক্রয়ের জন্য পরিষদ থেকে ৫০ হাজার টাকা প্রদান করেন।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে রাঙ্গামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান বৃষ কেতু চাকমা বলেন, একটি জাতির সঠিক ইতিহাস, সংস্কৃতি ও বাস্তব চিত্রকে ফুটিয়ে তোলার একমাত্র মাধ্যম হচ্ছে সাহিত্য ও সংস্কৃতি। বাঘাইছড়ি সাহিত্য ও সাংস্কৃতিক সংগঠন আরাঙ-এর এ ধরণের উদ্যোগ সত্যিই প্রসংশনীয়।

তিনি আরও বলেন, যুদ্ধ করে কোন দেশে শান্তি স্থাপিত হয় না বরং লেখনির মাধ্যমে অনেকটা শান্তি স্থাপিত হয়। সমাজের কল্যাণে যেসব মানুষ কাজ করে যাচ্ছেন বা একটি জাতির গুরুত্বপূর্ণ ইতিহাস এ ধরণের প্রকাশনাতে তুলে ধরার কাজে নিজেদের নিয়োজিত রেখেছেন, তাদের মৃত্যু হলেও এই বই থেকে যাবে এবং পরবর্তী প্রজন্ম জানতে পারবে সমাজের অতীত ইতিহাস। আরাঙ এর মতো সাহিত্য ও সংস্কৃতির উন্নয়নে যারাই এ ধরণের উদ্যোগ গ্রহণ করবেন তাদেরকে জেলা পরিষদ সবসময় সহযোগিতা প্রদান করে যাবে বলে আশ্বাস দেন জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান।

তিনি বলেন, বই প্রকাশে যারা এ ধরণের মহৎ উদ্যোগ গ্রহণ করেছেন তাদের চিন্তা চেতনা আরো বৃহৎ হোক। এ ধরনের প্রতিভা সমাজ ও দেশের উন্নয়নে অবশ্যই কাজ করবে।

খবরটি শেয়ার করুন

Post Comment