দীপংকর তালুকদার বলেন

‘ধর্মের নামে যারা নৈরাজ্য সৃষ্টি করে তারা কারো বন্ধু হতে পারে না’

স্টাফ রিপোর্ট –

ধর্মের নামে যারা নৈরাজ্য সৃষ্টি করে তারা কারো বন্ধু হতে পারেনা-দীপংকর তালুকদার

রাঙ্গামাটি জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাবেক প্রতিমন্ত্রী দীপংকর তালুকদার গতকাল বুধবার সন্ধ্যায় কাউখালী উপজেলা সদরস্থ শ্রী শ্রী সার্বজনীন গীতা মন্দিরের নব নির্মিত গীতা পাঠ ভবনের উদ্বোধন করেন।

তিনি বলেছেন, ধর্ম যার যার উৎসব সকলের। হিন্দু সম্প্রদায়ের দূর্গা উৎসব হলেও সার্বজনীনভাবে এ উৎসবে সকল সম্প্রদায়ের লোকজন অংশ গ্রহণ করে থাকে। তিনি বলেছেন, ধর্মের নামে যারা নৈরাজ্য সৃষ্টি করে তারা কারো বন্ধু হতে পারেনা। তিনি পার্বত্য এলাকায় সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বজায় এবং স্ব-স্ব সম্প্রদায় যেন তাদের ধর্মীয় উৎসব যথাযথ ও শান্তি পূর্নভাবে পালন করতে পারে সেদিকে সকলকে সজাগ থাকার আহবান জানিয়েছেন।

কাউখালী শ্রী শ্রী সার্বজনীন গীতা মন্দিরের নবনির্মিত গীতা পাঠ ভবনের উদ্বোধন উপলক্ষে আয়োজিত সমাবেশে প্রধান অথিতির ভাষণে এ কথা বলেন।

কাউখালী শ্রী শ্রী সার্বজনীন গীতা মন্দিরের পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি টুন্টু লাল দে-র সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় বিশেষ অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখেন রাঙ্গামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদের সদস্য অংসুই প্রু চৌধুরী, কাউখালী উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান এস,এম চৌধুরী, কলমপতি ইউপি চেয়ারম্যান ক্যজাই মারমা, কাউখালী উপজেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি মিলন কান্তি পালিত, কাউখালী শ্রী শ্রী সার্বজনীন গীতা মন্দিরের পূজা উদযাপন পরিষদের সাধারন সম্পাদক মিন্টু কান্তি  দে এবং সদস্য স্বপন কান্তি সাহা।

দীপংকর তালুকদার আরো বলেন, পার্বত্য এলাকার শান্তিপূর্ণ পরিবেশকে নস্যাৎ করার জন্য একটি কুচক্রিমহল সবসময় তৎপর রয়েছে। এসব চক্রান্তকারীদের ব্যাপারে সকলকে সজাগ থাকতে হবে এবং ঐক্যবদ্ধভাবে প্রতিহত করতে হবে। তিনি বলেন, হিন্দু ধর্ম একটি সনাতন ধর্ম, যুগ যুগ ধরে হিন্দু সম্প্রদায়ের লোকজন তাদের এই ধর্ম পালন করে আসছেন। কাউখালী শ্রী শ্রী গীতা মন্দিরের নতুন এই গীতাপাঠ ভবন হিন্দু সম্প্রদায়ের গীতা পাঠ করার জন্য উপযুক্ত  স্থান। তিনি ভবিষ্যতেও এ মন্দিরের উন্নয়নে সহযোগিতার আশ্বাস প্রদান করেন।

পরে তিনি কাউখালী শ্রী শ্রী গীতামন্দির, শারদীয় দূর্গোৎসব উপলক্ষে ঘাগড়া এবং বেতবুনিয়ায় বিভিন্ন পূজা মণ্ডপ পরিদর্শন করেন।

খবরটি শেয়ার করুন

Post Comment