২০ নভেম্বর সাভার বন বিহারে কঠিন চীবর দান অনুষ্ঠান

ডেস্ক রিপোর্ট –

Savar

কঠিন চীবর দান বৌদ্ধধর্মের ইতিহাসে ঐতিহ্য এবং উৎসব দুটোই। বর্ষাবাসকালীন জ্ঞান অন্বেষার সাধনায় নিমগ্ন মহান ভিক্ষুসংঘকে কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন এবং চীবর দানের মাধ্যমে পুণ্যলাভের প্রয়াসে ধর্মপ্রাণ বৌদ্ধরা এ শুভ দিবসটি উদযাপন করে থাকেন। মহামতি গৌতম বুদ্ধ কর্তৃক সংঘের সম্মানার্থে প্রবর্তিত এ দিবসটিকে সংঘ দিবস নামেও অভিহিত করা হয়।

রাজধানী ঢাকা শহরের প্রান্তছোঁয়া ইতিহাস বিখ্যাত বৌদ্ধ সম্রাট হরিশ চন্দ্র পালের স্মৃতি বিজড়িত বংশাই নদী বিধৌত পুণ্যভূমি সাভারে প্রতিষ্ঠিত সাভার আন্তর্জাতিক বন বিহার প্রাঙ্গনে যথাযথ ধর্মীয় মর্যাদা ও ভাবগাম্ভীর্যের মধ্য দিয়ে আগামী ২০ নভেম্বর ২০১৫ শুক্রবার সহস্রাব্দ প্রাচীন বৌদ্ধধর্মের ঐতিহ্যবাহী দানশ্রেষ্ঠ ১১তম কঠিন চীবর দানোৎসব অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে।

অনুষ্ঠিতব্য দানোৎসবে উপস্থিত থাকবেন লোকোত্তর জ্ঞানলাভী নির্বাণপ্রাপ্ত অর্হৎ সাধনানন্দ মহাস্থবির (বনভান্তে) মহোদয়ের প্রধান শিষ্য পরম পূজ্যষ্পদ নন্দপাল মহাস্থবির। আরো উপস্থিত থাকবেন বৃহত্তর ঢাকার বিভিন্ন বিহারের শাসন রক্ষাকারী বিদগ্ধ ও প্রাজ্ঞ ভিক্ষুসংঘ।

প্রধান অতিথি হিসেবে ঢাকা – ১৯ আসনের গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় সংসদ সদস্য ডা: এনামুর রহমান মহোদয় উক্ত পুণ্যানুষ্ঠানে উপস্থিত থেকে দানোৎসবকে আরো মহিমান্বিত করবেন বলে আশ্বস্ত করেছেন।

একই সাথে বৌদ্ধ সম্প্রদায়ের বিশিষ্ট ধর্মানুরাগী পুণ্যার্থীগণও এ মহতী ধর্মানুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করবেন। উক্ত নৈর্বাণিক পুণ্যানুষ্ঠানে সপরিজন ও সবান্ধবে অংশ গ্রহণ করে দুঃখমুক্তির পাথেয় লাভের সুযোগ গ্রহণের জন্য মৈত্রীময় শুভেচ্ছা জানিয়ে আন্তরিকভাবে অনুরোধ করেছেন সাভার বন বিহার কমিটির সভাপতি তথা কঠিন চীবর দান উদযাপন কমিটি -২০১৫ এর আহ্বায়ক ডা: অজয় প্রকাশ চাকমা এবং উদযাপন কমিটির সদস্য সচিব স্নেহময় চাকমা। উভয়ের সেলফোন যথাক্রমে ০১৭১৫১৩০৭২৫ এবং ০১৮২১৮৭৪৮০৯।

ঠিকানা: সাভার বন বিহার, দ: গাজীরচট, আশুলিয়া, সাভার, ঢাকা।

খবরটি শেয়ার করুন

Post Comment