বিমান ধ্বংসের পেছনে আইএস!

মিশরে বিধ্বস্ত রাশিয়ান বিমানের সবাই নিহত

অনলাইন ডেস্ক –

Russian+Air+crash

রাশিয়ার সেন্ট পিটারসবার্গ বিমানবন্দরে নিহত যাত্রীর স্বজনদের আহাজারি
মিশরের সিনাইয়ে বিধ্বস্ত বিমানের আরোহী ২২৪ জনের সবাই নিহত হয়েছেন। লোহিত সাগরের তীরবর্তী পর্যটন কেন্দ্র শারম আল শেখ থেকে রাশিয়ার বিমানটি উড্ডয়নের ২০ মিনিট পর সিনাই উপদ্বীপের দুর্গম একটি পাহাড়ি এলাকায় বিধ্বস্ত হয়।
মিশরের সেনা ও নিরাপত্তা কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, বিমানটিতে থাকা ২১৭ যাত্রী ও সাত জন ক্রুর মধ্যে সকলেই প্রাণ হারিয়েছেন। ঘটনাস্থল থেকে এখন পর্যন্ত উদ্ধার মৃতদেহগুলো আগুনে ঝলসানো অবস্থায় পাওয়া গেছে। দেশটির বেসামরিক বিমানবন্দর পরিচালনাকারী কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান আদেল মাহগুব জানিয়েছেন, বিমানটিতে আরোহীদের তিন জন ইউক্রেনের ও অন্যরা রাশিয়ার নাগরিক ছিলেন।
গতকাল শনিবার বিবিসির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, এয়ারবাস এ-৩২১ শারম আল শেখ থেকে উড্ডয়ন করে রাশিয়ার সেন্ট পিটারসবার্গে যাচ্ছিল। তবে বিমানটির বিধ্বস্ত হওয়ার কারণ এখনো জানা যায়নি। বিমানটির ব্ল্যাক বক্স উদ্ধার করা হয়েছে। রবিবার রাশিয়ায় জাতীয় শোক ঘোষণা করেছেন দেশটির প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন।
মিসরের নিরাপত্তা সূত্রগুলো জানিয়েছে, বিমানটি লক্ষ্য করে গুলি করা হয়েছিল কিনা এমন কোনো ইঙ্গিত পাওয়া যায়নি। সিনাইয়ের বেশকিছু এলাকায় ইসলামিক জঙ্গি গোষ্ঠী সক্রিয় রয়েছে।
রাশিয়ার বিমান কর্তৃপক্ষ ‘রোসাভিয়াটিয়া’র একজন মুখপাত্র সার্গেই ইভোলস্কি ইন্টারফ্যাক্স বার্তা সংস্থাকে বলেছেন, উড্ডয়নের ২৫ মিনিট পর বিমানটি নিয়ন্ত্রণ কক্ষের সাথে যোগাযোগ হারিয়ে ফেলে।
রাশিয়ার বিমান ধ্বংসের পেছনে আইএস!
মিশরে ইসলামিক স্টেটসের অনুগত একটি জঙ্গি সংগঠন সিনাই উপত্যকায় রাশিয়ান বিমান বিধ্বস্ত হওয়ার ঘটনার দায় স্বীকার করেছে। টুইটারে সমর্থকদের ছড়ানো একটি বিবৃতিতে এই দাবি করা হয়।
মিসরের সিনাই উপত্যকায় শনিবার ২২৪ আরোহীসহ একটি বেসামরিক বিমান বিধ্বস্ত হয়। বিমানটি সাইপ্রাস হয়ে রাশিয়ার পিটসবার্গের উদ্দেশে যাচ্ছিল। বিমানটির যাত্রীদের সকলেই ছিলেন রাশিয়ান পর্যটক। মিশরের নিরাপত্তা বাহিনী প্রাথমিক তদন্ত শেষে বলেছিল, শনিবারের ওই প্লেন বিধ্বস্ত হওয়ার ঘটনাটি কারিগরি ত্রুটির কারণে হয়েছে। মিশরের ইসলামিক স্টেটসের অনুগত জঙ্গি সংগঠনের টুইটারে দেওয়া এক পোস্টে বলা হয়, ইসলামিক স্টেটসের যোদ্ধারা সিনাই প্রদেশে একটি বিমান ধ্বংস করেছে যা ২২০ জনের বেশি রাশিয়ান ক্রুসেডার বহন করছিল। আল্লাহকে শুকরিয়া যে তাদের সবাই নিহত হয়েছে।
এই হামলার দায় আমাক ওয়েবসাইট থেকেও স্বীকার করা হয়েছে| ওয়েবসাইটটি ইসলামিক স্টেটসের অনানুষ্ঠানিক সংবাদ সংস্থা হিসেবে কাজ করে। সূত্র: এপি, বিবিসি, রয়টার্স

খবরটি শেয়ার করুন

Post Comment