রাঙ্গামাটি মহিলা কলেজ পরিদর্শনে ফিরোজা বেগম চিনু

স্টাফ রিপোর্ট –

Chinu

পাহাড়ের পিছিয়ে পড়া জনগোষ্ঠির শিক্ষার মানোন্নয়নে বর্তমান সরকার খুবুই আন্তরিক বলে মত প্রকাশ করেছেন জাতীয় সংসদ সদস্য ফিরোজা বেগম চিনু । পাহাড়ের শিক্ষার মানোন্নয়নে নানাবিধ গুরুত্বপূর্ণ পদক্ষেপ গ্রহণ করেছেন বর্তমান সরকারের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি বলেন, বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সরকারের দায়িত্ব নেওয়ার পর থেকে পার্বত্য চট্টগ্রামের বিভিন্নমুখী উন্নয়নে সর্বোচ্চ বরাদ্দ দিচ্ছেন। আধুনিক বাংলাদেশ বিনির্মাণে প্রধানমন্ত্রী সমগ্র বাংলাদেশের উন্নয়নের সাথে পার্বত্য চট্টগ্রামকেও সম্পৃক্ত করেছেন।

আজ ৮ ডিসেম্বর মঙ্গলবার সকালে রাঙ্গামাটি মহিলা কলেজ পরিদর্শন শেষে কলেজের অধ্যক্ষ, প্রভাষক ও শিক্ষার্থীদের সাথে মত বিনিময়কালে ফিরোজা বেগম চিনু এসব কথা বলেন। এ সময় কলেজের অধ্যক্ষ শফিউল আলম, সহকারী অধ্যক্ষ ফারহানা আফরোজ, আয়েশা বেগমসহ শিক্ষার্থীরা উপস্থিত ছিলেন।

কলেজের অধ্যক্ষ ও শিক্ষার্থীরা কলেজের বিভিন্ন সমস্যার কথা তুলে ধরে বলেন, এই কলেজে আমরা দীর্ঘদিন যাবৎ শিক্ষক সংকটে ভুগছি। শিক্ষকের অভাবে পাঠ্য শিক্ষা হতে বঞ্চিত হচ্ছি। এছাড়া আমাদের নিরাপদ পানির অভাব রয়েছে। তারা বলেন, সরকারের ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার প্রত্যয়ে আমারাও অংশীদার হতে চাই। কিন্তু আমাদের একটি কম্পিউটার ল্যাব না থাকায় যথাযথ প্রযুক্তি শিক্ষা থেকে আমরা বঞ্চিত হচ্ছি। আমাদের একটি ভাল মানের ক্যান্টিন নেই। যার ফলে আমাদের ভোগান্তি পোহাতে হয়। এছাড়াও আমাদের  কমনরুম, অডিটরিয়াম, শহীদ মিনার নাই এবং আমাদের কলেজে আসা-যাওয়া সড়কের বেহালদশার কারণে চলাচলে আমাদের কষ্ট হয়।

এমপি বলেন, বর্তমান সরকার শিক্ষা বান্ধব সরকার। এখানকার শিক্ষার্থীদের উচ্চ শিক্ষা গ্রহণের কথা চিন্তা করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা অত্যন্ত দৃঢ়তার সাথে রাঙ্গামাটিতে মেডিকেল কলেজ, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপন করেন। তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী  সুদর প্রসারী চিন্তাধারার মাধ্যমে আধুনিক বাংলাদেশ তথা ডিজিটাল বাংলাদেশ বিনির্মাণে কাজ করছে। জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে শিক্ষা ক্ষেত্রে, অর্থনীতি ক্ষেত্রে, সামাজিক অবকাঠামো উন্নয়নে, প্রযুক্তি ক্ষেত্রে বাংলাদেশ আজ বিশ্বের রোল মডেল হিসেবে পরিচিতি পাচ্ছে।

জেলা শিক্ষা প্রকৌশলীকে দায়ী করে এমপি চিনু বলেন, দীর্ঘদিন ধরে রাঙ্গামাটি সরকারি কলেজের একাডেমিক ভবন নির্মাণের জন্য টেন্ডারের সকল প্রস্তুতি সম্পূর্ণ থাকলেও জেলা শিক্ষা প্রকৌশলীর গাফিলতির কারণে রাঙ্গামাটি সরকারি কলেজের একাডেমিক ভবনের কাজটি শুরু করা যাচ্ছে না। বারবার বলার পরও তিনি কান্ডজ্ঞানহীনভাবে দায়িত্বে অবহেলা করে যাচ্ছেন। তার কারণে জেলার অন্যান্য শিক্ষার অবকাঠামো উন্নয়ন করা যাচ্ছে না বলে তিনি অভিযোগ করেন। তিনি আগামীতে কলেজের সমস্যা নিরসনের বিষয়টি মন্ত্রণালয়ে উপস্থাপন করবেন বলে প্রতিশ্রুতি ব্যক্ত করেন।

খবরটি শেয়ার করুন

Post Comment