কাপ্তাইতে সড়ক দুর্ঘটনায় ১৪ জন নারী পুরুষ আহত

কাপ্তাই রিপোর্ট –

Accident

কাপ্তাই উপজেলার রাইখালী ইউনিয়নে একটি জীপ (চাঁদের গাড়ি) সড়ক দুর্ঘটনায় পতিত হয়। এতে ১৪ জন যাত্রী গুরুতর আহত হন। আহতদের পার্শ্বস্থ চন্দ্রঘোনা খ্রীস্টিয়ান মিশন হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

জানা গেছে, গেলো শুক্রবার বিকেলে কাপ্তাই উপজেলার রাইখালী ইউনিয়নের কারিগর পাড়া থেকে একটি চাঁদের গাড়িতে চড়ে ২০ জন যাত্রী ভালুকা নামক স্থানে যাচ্ছিলেন। উঁচু পাহাড় থেকে নিচের দিকে নামার সময় চালক হঠাৎ নিয়ন্ত্রন হারিয়ে ফেললে গাড়িটি উল্টে গভীর খাদে পড়ে যায়। এ সময় প্রায় সব যাত্রী আহত হন। আহত যাত্রীদের চিৎকারে আশপাশের লোকজন ছুটে এসে আহতদের উদ্ধার করে চন্দ্রঘোনা খ্রীস্টিয়ান হাসপাতালে নিয়ে যান।

হাসপাতালে চিকিৎসাধীন যাত্রীরা হলেন মংকে থুই মারমা (৪৫), উচালাহ্‌ মারমা (২২), কেওশাইনু মারমা (১৬), মংওচিং মারমা (৩৬), মংসু মারমা (৩৫), জ্যোতিন্দ্র তনচংগ্যা (৭০), মেমাচিং মারমা (৩৬), থুমাইচিং মারমা (৩৭), অংক্র মারমা (৭০), মেচু মারমা (৬০) ও ক্রাউচিং মারমা (৪৪)। আহত উচালাহ্‌ ও মেমাচিং মারমা বলেন চাঁদের গাড়িতে ধারণ ক্ষমতার চেয়ে বেশি যাত্রী ছিল। তাছাড়া অনেক মালামালও গাড়িতে বোঝাই করা হয়েছিল। চালকের অসতর্কতায় এই দুর্ঘটনা ঘটে বলে তারা অভিযোগ করেন।

কাপ্তাই উপজেলা চেয়ারম্যান মো: দিলদার হোসেন আহতদের দেখতে হাপাতালে যান। এ সময় উপস্থিত ছিলেন কাপ্তাই প্রেস ক্লাবের সভাপতি কাজী মোশাররফ হোসেন, সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব ঝুলন দত্ত ও বিশিষ্ট উপস্থাপক নুর মোহাম্মদ বাবু। উপজেলা চেয়ারম্যান রোগীদের খোঁজ খবর নেন। তিনি রোগীদের প্রয়োজনীয় চিকিৎসা দেয়ার জন্য ডাক্তারদের প্রতি আহবান জানান। পাশাপাশি চাঁদের গাড়ির মালিককে আহতদের চিকিৎসার খরচ বহন করতে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নিতে চন্দ্রঘোনা থানার ওসি মো: জহিরুল আনোয়ারকে ব্যবস্থা নিতে অনুরোধ জানান চেয়ারম্যান।

খবরটি শেয়ার করুন

Post Comment