গৃহকর্মী সুরক্ষা ও কল্যাণ নীতিমালা অনুমোদন আজকের মন্ত্রীসভায়

অনলাইন ডেস্ক –

SHasina

বাংলাদেশে গৃহকর্মী হিসেবে কাউকে নিয়োগ দেয়া হলে কর্তৃপক্ষের কাছে তার নাম নিবন্ধন করতে হবে, তাকে বিশ্রামের সময় ও ছুটি দিতে হবে – মন্ত্রীসভায় আজ এসব বিধান রেখে একটি নীতিমালা অনুমোদিত হয়েছে।

গৃহকর্মী সুরক্ষা ও কল্যাণ নীতিমালায় গৃহ শ্রমিকদের জন্যে শোভন কাজ দেওয়া, সময়মতো বিশ্রাম দেওয়া, বিনোদন ছুটি, মাতৃত্বকালীন ছুটি এসব নিশ্চিত করার কথা বলা হয়েছে।

মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, এই নীতিমালা অনুমোদন পাওয়ায় শ্রম আইন অনুযায়ী গৃহকর্মীরা বিভিন্ন সুযোগ-সুবিধা পাবেন। সর্বনিম্ন ১৪ বছরের কাউকে গৃহকর্মী নিয়োগ দেয়া যাবে না। গৃহকর্মীদের শ্রমঘণ্টা এবং বেতন আলাপ-আলোচনার মাধ্যমে ঠিক করতে হবে। এই নীতিমালা অনুমোদনের ফলে গৃহকর্ম শ্রম হিসেবে স্বীকৃতি পাবে এবং চার মাসের মাতৃত্বকালীন ছুটিও পাবেন গৃহকর্মীরা। তাদেরকে বিনোদন ছুটিও দিতে হবে।

মন্ত্রী পরিষদ সচিব মোহাম্মদ শফিউল আলম সাংবাদিকদের বলেছেন, জেনেভা কনভেনশনের স্বাক্ষরকারী দেশ হিসেবে বাংলাদেশ এই নীতিমালাটি অনুমোদন করেছে।

নীতিমালায় বলা হয়েছে, ১৪ থেকে ১৮ বছরের শ্রমিকরা হালকা কাজ করবে, আর ১৮ বছরের বেশি হলে তাকে হালকা ও ভারী কাজ দেওয়া যেতে পারে।

সরকার বলছে, গৃহ শ্রমিকদের নাম নিবন্ধনের জন্যে কিছু সেন্টার খোলা হবে। গৃহ শ্রমিকদের জন্যে একটি হেল্প লাইনও চালু করা হবে।

তিনি বলেন, গৃহকর্মীদের নির্যাতন করলে প্রচলিত আইন অনুযায়ী সরকার ব্যবস্থা নেবে।
শ্রমিকদের অধিকার রক্ষায় কাজ করে এরকম একটি সংগঠন বিলসের হিসেবে বাংলাদেশে গৃহ শ্রমিকের সংখ্যা প্রায় ২০ লাখ।

খবরটি শেয়ার করুন

Post Comment