পৌরসভা নির্বাচনে যানবাহন ব্যবহারে নিষেধাজ্ঞা

ডেস্ক রিপোর্ট –

Embergo

দেশের ২৩৪টি পৌরসভায় নির্বাচন ৩০ ডিসেম্বর। এ প্রেক্ষিতে ১৯৮৩ সালের মোটর ভেহিক্যালস অধ্যাদেশ (১৯৮৩ সালের ৫৫নং অধ্যাদেশ) -এর ৮৮ ধারা অনুযায়ী সারাদেশে ভোট গ্রহণের নির্ধারিত দিবসের পূর্ববর্তী মধ্যরাত অর্থাৎ ২৯ ডিসেম্বর ২০১৫ তারিখ দিবাগত মধ্যরাত ১২টা থেকে ৩০ ডিসেম্বর ২০১৫ তারিখ দিবাগত মধ্যরাত ১২টা পর্যন্ত নিম্নোক্ত যানবাহন চলাচলের উপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হযেছে। যানবাহনগুলো হচ্ছে, ১. বেবী ট্যাক্সি/ অটোরিক্সা /ইজিবাইক, ২. ট্যাক্সি ক্যাব, ৩. মাইক্রোবাস, ৪. জীপ, ৫. পিক আপ, ৬. কার, ৭. বাস, ৮. ট্রাক, ৯. টেম্পো।

এছাড়া ২৭ ডিসেম্বর দিবাগত মধ্যরাত ১২টা হতে ৩১ ডিসেম্বর সকাল ৬টা পর্যন্ত মোটর সাইকেল চলাচলের উপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয়। তবে রিটার্নিং অফিসারের অনুমতি সাপেক্ষে প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী/তাদের নির্বাচনী এজেন্ট, দেশী/বিদেশী পর্যবেক্ষকদের (পরিচয়পত্র থাকলে) ক্ষেত্রে শিথিল যোগ্য। তাছাড়া নির্বাচনের সংবাদ সংগ্রহের কাজে নিয়োজিত দেশী/বিদেশী সাংবাদিক (পরিচয়পত্র থাকলে), নির্বাচন কাজে নিয়োজিত কর্মকর্তা-কর্মচারী, আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্য, নির্বাচনের বৈধ পরিদর্শক এবং কতিপয় জরুরী কাজে যেমন- এ্যাম্বুলেন্স, ফায়ার সার্ভিস, বিদ্যুৎ, গ্যাস, ডাক, টেলিযোগাযোগ ইত্যাদি কার্যক্রমে ব্যবহারের জন্য উল্লিখিত যানবাহন চলাচলের ক্ষেত্রে উক্ত নিষেধাজ্ঞা প্রযোজ্য হবে না। এছাড়া জাতীয় মহাসড়ক বন্দর ও জরুরী পণ্য সরবরাহসহ অন্যান্য জরুরী প্রয়োজনে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ এরূপ নিষেধাজ্ঞা শিথিল করতে পারবেন।

অপরদিকে পৌরসভা নির্বাচনে (২৯ ডিসেম্বর ২০১৫ তারিখ দিবাগত মধ্যরাত ১২টা থেকে ৩০ ডিসেম্বর ২০১৫ তারিখ দিবাগত মধ্যরাত ১২টা পর্যন্ত) প্রত্যেক মেয়র প্রার্থী নিজের জন্য ১টি ও নির্বাচনী এজেন্টের জন্য ১টি মোট ২টি গাড়ী ব্যবহার করতে পারবেন। সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর প্রার্থীরা ১টি করে গাড়ী ব্যবহার করতে পারবেন। সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয়ের বিআরটিএ সংস্থাপন অধিশাখা ২১শে ডিসেম্বর ২০১৫ ইং ৩৫.০২০. ০১৭.০০.০০.০০১.২০১১ (অংশ-১)-৫৫৮ নং স্মারকের চিঠিতে বিষয়টি নিশ্চিত হওয়া গেছে।

খবরটি শেয়ার করুন

Post Comment