রাঙ্গামাটিতে মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্সের উদ্বোধন

রাঙ্গামাটি রিপোর্ট –

Freedom

বিএনপি-জামাত জোট মুক্তিযুদ্ধের সঠিক ইতিহাস বিকৃত করে উপস্থাপন করার কারণে সাধারণ মানুষের মধ্যে বিরূপ প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি হচ্ছে বলে মন্তব্য করেছেন মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ.ক.ম মোজাম্মেল হক। তিনি বলেন, মুক্তিযুদ্ধের সঠিক ইতিহাস জানাতে হবে নতুন প্রজন্মসহ গোটা জাতিকে। তাই বর্তমান সরকার মুক্তিযুদ্ধের সঠিক ইতিহাস তুলে ধরতে পাঠ্যপুস্তকে ১৯৭১ -এর যুদ্ধে মুক্তিযোদ্ধা ও পাক হানাদার বাহিনীর কার্যক্রম তুলে ধরার পাশাপাশি বিসিএস পরীক্ষায় মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস নিয়ে পরীক্ষা গ্রহণ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। এতে করে মুক্তিযুদ্ধে মুক্তিবাহিনী ও পাক বাহিনী এবং যুদ্ধাপরাধীদের সঠিক ইতিহাস নতুন প্রজন্ম জানতে পারবে। তিনি বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনা মুক্তিযোদ্ধাদের কল্যাণের কথা ভেবে মুক্তিযোদ্ধা ভাতা মাসিক ১০ হাজার টাকা এবং বছরে ২টি করে বোনাস প্রদানের পাশাপাশি অস্বচ্ছল মুক্তিযোদ্ধাদের দেশের সকল সরকারি বেসরকারি হাসপাতালে বিনামূল্যে চিকিৎসা সেবা ও ঔষুধ প্রদানের সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছে যা অন্য কোন সরকার করেনি।

তিনি বলেন, দেশের যে সকল জায়গায় পাক বাহিনীর সাথে মুক্তিযোদ্ধাদের যুদ্ধ হয়েছিল সেখানে স্মৃতিস্তম্ভ ও নিরীহ মানুষকে হত্যা করা হয়েছিল সেখানে বধ্যভূমি নির্মাণ করা হবে। পাশাপাশি মুক্তিযোদ্ধাদের সম্মানার্থে মৃত্যুর পর  মুক্তিযোদ্ধাদের কবরের ডিজাইন একই ধরনের করা হবে।

শুক্রবার ১ জানুয়ারি সকালে রাঙ্গামাটিতে  মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্স ভবনের উদ্বোধন পরবর্তী জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে আয়োজিত মুক্তিযোদ্ধাদের সাথে মতবিনিময় সভায় তিনি একথা বলেন।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মধ্যে রাঙ্গামাটি আসনের সংসদ সদস্য উষাতন তালুকদার ও সাবেক পার্বত্য প্রতিমন্ত্রী দীপংকর তালুকদার, জেলা প্রশাসক সামশুল আরেফিন, পুলিশ সুপার সাঈদ তারিকুল হাসান, মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার রবার্ট রোনাল্ড পিন্টু’সহ রাঙ্গামাটির মুক্তিযোদ্ধারা উপস্থিত ছিলেন।

রাঙ্গামাটি শহরের তবলছড়িতে ১ কোটি ৩৯ লক্ষ টাকা ব্যয়ে গণপূর্ত বিভাগ এই মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্স ভবনটি নির্মান করে। মন্ত্রী নতুন ভবনের বিভিন্ন অংশ ঘুরে দেখেন এবং মুক্তিযোদ্ধাদের সাথে মিলিত হন।

খবরটি শেয়ার করুন

Post Comment