বৌদ্ধ মন্দিরে হামলা ও মূর্তি ভাংচুরের ঘটনায় দুই খ্রিষ্টান যুবকের শাস্তি দাবি

নাইক্ষ্যংছড়ি রিপোর্ট –

Buddhist

বান্দরবানে নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলার বাইশারি ইউনিনের উত্তর চাক পাড়া (শিয়া পাড়া নামে পরিচিত) বৌদ্ধ জাদি মন্দিরে হামলা ও মূর্তি ভাংচুরের ঘটনায় তীব্র প্রতিবাদ ও সদ্য ধর্মান্তরিত দোষী দুই খ্রিষ্টান যুবকের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানিয়েছেন পার্বত্য ভিক্ষু কল্যাণ সমিতি।

পার্বত্য ভিক্ষু কল্যাণ সমিতির সভাপতি ও উজানী পাড়া মহাবৌদ্ধ বিহারের বিহারাধ্যক্ষ  উ চাইন্দাওয়ারা মহাথেরো‘র স্বাক্ষরিত একটি প্রতিবাদ লিপিতে বলা হয়, গেলো ৮ জানুয়ারি শুক্রবার সন্ধ্যা ৭টার দিকে নাইক্ষ্যংছড়ির বাইশারি ইউনিয়নের মধ্যম চাক পাড়ার বাসিন্দা অংথুই চাকের পুত্র অংচাই চাক (১৫) ও একই গ্রামের বাসিন্দা খিজারী চাকের পুত্র চক্রাঅং চাক (১৬) নামে সদ্য ধর্মান্তরিত দুই খ্রিষ্টান যুবক বৌদ্ধ জাদি মন্দিরে হামলা চালিয়ে বৌদ্ধ মূর্তি ভাংচুর ও বেদী থেকে অনেকগুলো মূর্তি এলোপাথারিভাবে ফেলে দেয়।

প্রতিবাদ লিপিতে আরো বলা হয়, এ ঘটনায় গ্রেপ্তারকৃত দোষী দুই খ্রিষ্টান যুবককে জামিনে মুক্তি দেওয়ায় আমরা খুবই উদ্বিগ্ন।

ভবিষ্যতে বৌদ্ধ ধর্মীয় স্থাপনায় এ ধরনের হামলা ও মূর্তি ভাংচুরের মত নারকীয় কাজ কেউ যেন করতে না পারে তজ্জন্য সরকারের কাছে এ ঘটনার মূল উষ্কানিদাতাকে চিহ্নিত করে সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ তদন্তের স্বার্থে সদ্য বৌদ্ধ ধর্ম থেকে খ্রিষ্টান ধর্মে ধর্মান্তরিত দোষী দুই খ্রিষ্টান যুবককে ফের গ্রেপ্তারের মাধ্যমে কঠোর ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানানো হয়েছে ।

খবরটি শেয়ার করুন

Post Comment