রাঙ্গামাটিতে স্বাস্থ্য মেলা ২০১৬ -এর সমাপনী অনুষ্ঠান সম্পন্ন

রাঙ্গামাটি রিপোর্ট –

SLarma

পার্বত্য চুক্তির ১৮ বছর অতিবাহিত হলেও সরকার চুক্তি বাস্তবায়ন নিয়ে দ্বিধাগ্রস্থ রয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন পার্বত্য চট্টগ্রাম আঞ্চলিক পরিষদ চেয়ারম্যান জ্যোতিরিন্দ্র বোধিপ্রিয় লারমা। তিনি বলেন, পার্বত্য শান্তি চুক্তি বাস্তবায়ন না হলে পার্বত্য অঞ্চলের স্বাস্থ্য সেবা-সহ কোন সেক্টরের উন্নয়ন কখনই সম্ভব নয়। পার্বত্য শান্তি চুক্তি পূর্ণাঙ্গ বাস্তবায়ন হলে পাহাড়ের মানুষের সামগ্রিক উন্নয়ন সাধিত হবে। তিনি পাহাড়ের মানুষের উন্নয়নে শান্তি চুক্তি বাস্তবায়নে আরো বেশী মনোযোগী হওয়ার আহবান জানান।

আজ ২০ জানুয়ারি বুধবার রাঙ্গামাটি জেনারেল হাসপাতাল চত্বরে ২ দিনব্যাপী স্বাস্থ্য মেলার সমাপনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

রাঙ্গামাটি জেলার সিভিল সার্জন ডা. স্নেহ কান্তি চাকমার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, রাঙ্গামাটি জেলা প্রশাসক মো: সামসুল আরেফিন, ঢাকা নারী পক্ষের সদস্য শামছুন নেসা, হিমাওয়ান্তির নির্বাহী পরিচালক ও নারী নেত্রী টুকু তালুকদার, এ্যাডভোকেট সুস্মিতা চাকমা।

সন্তু লারমা বলেন, সরকারের আন্তরিকতার অভাবে পার্বত্য অঞ্চলের নারীরা বিভিন্ন স্বাস্থ্য সেবা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে। সকলের সমন্বয়ের মাধ্যমে যদি পার্বত্য অঞ্চলের স্বাস্থ্য সেবাসহ বিভিন্ন সমস্যা নিরসন করা যেতো তাহলে পার্বত্য অঞ্চলের নারীরা স্বাস্থ্য সেবাসহ বিভিন্ন সুযোগ সুবিধা লাভ করতো।

তিনি বলেন, পার্বত্য অঞ্চলের নারীরা সমাজে এখনো নিপীড়িত ও নির্যাতিত। পুরুষের ন্যায় নারীরাও সমানভাবে কাজ করলেও তাদের শ্রমের কোন মূল্যায়ন হয় না। নারীদেরকে পিছিয়ে রেখে আমাদের দেশ কখনই এগিয়ে যাবে না। তাই নারীদের কথা মাথায় রেখে আমাদেরকে আগামী দিনের বিভিন্ন কর্মপন্থা নির্ধারণ করতে হবে।

এর আগে তিনি নারীবান্ধব হাসপাতাল কর্মসূচির অংশ হিসাবে নারীদের অংশ গ্রহণের বিভিন্ন সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ও নাটিকা উপভোগ করেন এবং স্বাস্থ্য মেলার বিভিন্ন স্টল ঘুরে দেখেন।

খবরটি শেয়ার করুন

Post Comment