সাগরে বৃদ্ধি পাচ্ছে বৈশ্বিক উষ্ণায়নের তাপ

অনলাইন ডেস্ক –

Ocean

 

বিগত দুই দশকে এর আগের ১৩ দশকের প্রায় সমান তাপ শুষে নিয়েছে মহাসাগরগুলো। বৈশ্বিক উষ্ণতা বৃদ্ধির পরিপ্রেক্ষিতে সাগরে তাপ ধারণের পরিমাণও বাড়ছে। কিন্তু এটা আদতে কোনো সমাধান নয় বলে সতর্ক করে দিয়েছেন বিজ্ঞানীরা।

নেচার ক্লাইমেট চেঞ্জ সাময়িকীতে গত সোমবার প্রকাশিত নিবন্ধে বিজ্ঞানীরা বলেন, গত দুই দশকে যে পরিমাণ তাপ সাগর শোষণ করে নিয়েছে, এর এক-তৃতীয়াংশ শোষিত হয়ে আছে সাগরের দুই ২,৩০০ ফুট গভীরে, যেখানে সূর্যের আলো পৌঁছায় না। পৃথিবীর উপরিভাগ থেকে সাগরের ক্রমাগত তাপ শোষণের ফলে আপাতত মানুষ ভালো থাকতে পারলেও বিস্ফোরণোন্মুখ সাগর বিশ্বের সমগ্র আবহাওয়া ও জলবায়ুকে ক্ষতিগ্রস্ত করতে পারে।

বিজ্ঞানীরা জানান, মানুষের কারণে যে বাড়তি গ্রিনহাউজ গ্যাস উৎপন্ন হয়, তার ৯০ শতাংশই সাগর শুষে নেয়। ফলে পৃথিবীর উপরিভাগের তাপমাত্রা যতটা বাড়ার কথা, ততটা বাড়তে পারে না।

আপাতদৃষ্টিতে মানুষের জন্য এটা ইতিবাচক মনে হলেও ব্যাপারটা কিন্তু বিপজ্জনক। ইউনিভার্সিটি অব সাউদাম্পটনের ন্যাশনাল ওশেনোগ্রাফি সেন্টারের গবেষক জন শেপার্ড জানান, এই বাড়তি তাপ সাগরে থেকে গেলে সেটা সাগর ও বায়ুচক্রের ওপর নেতিবাচক প্রভাব ফেলতে পারে এবং আবহাওয়ার গতিবিধি বদলে দিতে পারে। সাগরের অম্লত্ব বেড়ে যাওয়ার ফলে সামুদ্রিক পরিবেশে ক্ষতির পরিমাণ বেড়ে যেতে পারে। এরই মধ্যে প্রবালের ওপর উষ্ণায়নের ক্ষতির ছাপ স্পষ্ট হয়ে উঠেছে। আর যদি সাগর ওই তাপ বায়ুমণ্ডলে ফিরিয়ে দেয়, তবে পৃথিবীর উপরিভাগের তাপমাত্রা বিপজ্জনকভাবে বৃদ্ধি পাবে। – এএফপি

খবরটি শেয়ার করুন

Post Comment