দ্য ডেইলি ষ্টার সম্পাদকের বিরুদ্ধে রাঙ্গামাটির আাদালতে মানহানি মামলা

রাঙ্গামাটি রিপোর্ট –

Case 2

ইংরেজি দ্য ডেইলি ষ্টার সম্পাদক মাহাফুজ আনামের বিরুদ্ধে রাঙ্গামাটি চিফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে মানহানির মামলা দায়ের করেছেন কাপ্তাই উপজেলা যুবলীগের সভাপতি নাসির উদ্দিন।

ওয়ান ইলেভেনের জরুরী সরকারের সময় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বিরুদ্ধে ডিজিএফআইয়ের দেয়া তথ্যের ভিত্তিতে মিথ্যা সংবাদ প্রকাশ করায় ডেইলি স্টার পত্রিকার সম্পাদক মাহফুজ আনামের বিরুদ্ধে আজ রোববার রাঙ্গামাটি চীফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট শামসুদ্দিন খালেদ -এর আদালতে এই মামলা দায়ের করা হয়।

ওয়ান ইলাভেনের সময় পত্রিকায় বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেষ হাসিনা ও দলের বিরুদ্ধে মিথ্যা সংবাদ পরিবেশনের মাধ্যমে ভাবমুর্তি ক্ষুন্ন করায় এই মামলা দায়ের করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন মামলার বাদী যুবলীগ সভাপতি নাসির উদ্দিন।

তিনি আরো বলেন, উক্ত ঘটনায় নেত্রীর মানহানি করায় ও তাকে জেল খাটানোতে মাহফুজ আনামের সংশ্লিষ্টতা থাকায় তার বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণে রাঙ্গামাটি জেলা ও দায়রা জজ আদালতের প্রবীণ আইনজীবী এডভোকেট পরিতোষ কুমার দত্তের মাধ্যমে মাহফুজ আনামের বিরুদ্ধে রাঙ্গামাটি জেলার চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট শামসুদ্দিন খালেদের আদালতে বাংলাদেশ দন্ডবিধি ৫০০(খ) ধারায় মামলাটি দায়ের করি। আমি আইনের প্রতি শ্রদ্ধাশীল একজন ব্যক্তি হই। তাই মাননীয় আদালতের মাধ্যমে উক্ত বিষয়টি নিয়ে ন্যায় বিচার প্রত্যাশা করছি।

মামলার বাদীর আইনজীবী পরিতোষ কুমার দত্ত জানান, আদালত এই বিষয়ে মামলাটি আমলে নিয়ে রাঙ্গামাটি সদর থানা পুলিশকে তদন্ত করে পরবর্তী ব্যবস্থা নেয়ার জন্য আদেশ দিয়েছেন।

উল্লেখ্য, সম্প্রতি এটিএন নিউজের এক অনুষ্ঠানে মাহফুজ আনাম স্বীকার করেন যে ওয়ান ইলেভেনের পর আওয়ামী লীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনাকে নিয়ে শেখ সেলিমের স্বীকারোক্তির তথ্য সরবরাহ করেছিল ডিজিএফআই। সে তথ্য তার পত্রিকায় ছাপা ভুল ছিল বলে তিনি মন্তব্য করেন।

এরপর প্রধানমন্ত্রীর ছেলে সজীব ওয়াজেদ জয় মাহফুজ আনামের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহের অভিযোগ আনেন এবং তার বিচার দাবি করেন। এরপর সংসদে এবং সংসদের বাইরেও একই দাবি তোলেন সরকারি দলের কয়েকজন নেতা। এরপর থেকেই দেশের বিভিন্ন স্থানে শুরু হয় মামলা দায়ের।

মামলায় বলা হয়েছে, ১/১১-এর সময় আওয়ামী লীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনার বিরুদ্ধে ডিজিএফআইয়ের সরবরাহ করা তথ্য যাচাই-বাছাই না করে মিথ্যা ও বানোয়াট সংবাদ পরিবেশন করে ডেইলি স্টার।

ইংরেজি দ্য ডেইলি স্টার সম্পাদক মাহফুজ আনামের বিরুদ্ধে রাঙ্গামাটিসহ দেশের ১১ জেলায় মোট ১৭টি মামলা হয়েছে। এর মধ্যে শুধু রোববারই সাত জেলায় ১১টি মানহানির মামলা হয়েছে।

রাঙ্গামাটি ছাড়াও এক-এগারো’র সময় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বিরুদ্ধে মিথ্যা খবর প্রকাশ এবং মানহানির অভিযোগে শরীয়তপুর, সিলেট, খুলনা, পটুয়াখালী, নেত্রকোনা ও দিনাজপুর জেলায় এসব মামলা হয়।

শরীয়তপুর –
শরীয়তপুরে ডেইলি স্টার পত্রিকার সম্পাদক মাহফুজ আনামের বিরুদ্ধে তিনটি রাষ্ট্রদ্রোহ ও মানহানির মামলা দায়ের করা হয়েছে।

জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি ও সাবেক ভিপি নুরুল আমিন কোতোয়াল, বাংলাদেশ আওয়ামী মুক্তিযুদ্ধ প্রজন্মলীগের কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক হাসিবুল ইসলাম মিঠু কোতোয়াল ও জাজিরা উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মো. হানিফ মাদবর বাদী হয়ে এ মামলাগুলো দায়ের করেন।

শরীয়তপুর জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালত একটি মামলায় সমন জারি করে বাকি দুইটিতে পুলিশকে তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন।

সিলেট
সিলেটে ডেইলি স্টার সম্পাদক মাহফুজ আনামের বিরুদ্ধে ১০০ কোটি টাকা করে পৃথক দুটি মানহানি মামলায় সমন জারি হয়েছে।

রোববার সকালে সিলেট চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট সাইফুজ্জামান হিরোর আদালতে মামলা দুটি দায়ের করা হয়।

আদালত মামলা আমলে নিয়ে মাহফুজ আনামের বিরুদ্ধে সমন জারি করেছেন বলে জানিয়েছেন বাদী আবদুল বাসিত রুম্মানের আইনজীবী হুমায়ুন কবীর বাবুল।

সিলেট মহানগর ছাত্রলীগের সভাপতি আবদুল বাসিত রুম্মান ১০০ কোটি এবং সাবেক সভাপতি রাহাত তরফদার ১০০ কোটি টাকার মানহানি মামলা দুটি দায়ের করেন। মামলায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বিরুদ্ধে মানহানিকর সংবাদ প্রকাশের অভিযোগ আনা হয়েছে।

খুলনা –
দুপুরে খুলনা মুখ্য মহানগর হাকিমের আমলি আদালত ‘ক’ অঞ্চলে মাহফুজ আনামের বিরুদ্ধে দুটি মানহানির মামলা করেন জেলা ছাত্রলীগের যুগ্ম-সম্পাদক পারভেজ হাওলাদার ও দফতর সম্পাদক তসলিম হুসাইন তাজ।

এর মধ্যে তসলিম হুসাইন তাজ ১০ কোটি এবং পারভেজ হাওলাদার পাঁচ কোটি টাকার ক্ষতিপূরণ দাবি করেছেন।

আদালতের বিচারক আয়শা আক্তার মৌসুমী একটিতে তদন্ত প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ এবং অপরটিতে আসামির বিরুদ্ধে সমন জারি করার আদেশ দিয়েছেন বলে তসলিম হুসাইন তাজ জানিয়েছেন।

পটুয়াখালী
মাহফুজ আনামের বিরুদ্ধে পটুয়াখালী জ্যেষ্ঠ বিচারিক হাকিম আদালতে পাঁচ কোটি টাকার একটি মানহানি মামলা করা হয়েছে। সকালে মামলাটি দায়ের করেন জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট উজ্জ্বল বোস। আদালত মামলাটি আমলে নিয়ে আসামির বিরুদ্ধে সমন জারি করেছেন।

বাদী জানান, আগামী ৫ এপ্রিল সশরীরে আসামিকে আদালতে হাজির হওয়ার নির্দেশনা রয়েছে আদালতের।

নেত্রকোনা
মাহফুজ আনামের বিরুদ্ধে সকালে নেত্রকোনা অতিরিক্ত মুখ্য বিচারিক হাকিম আদালতে মানহানির মামলা করেছেন সরকারি কৌঁসুলী গোলাম মোহাম্মদ খান পাঠান বিমল। তিনি ১২০(ক), ১২৪(ক) ও ৫০১ ধারায় এ মামলা দায়ের করেন।

দিনাজপুর
দুপুরে জেলা অতিরিক্ত মুখ্য বিচারিক হাকিম আদালতে ডেইলি স্টার পত্রিকার সম্পাদকের বিরুদ্ধে মানহানির মামলাটি করেন অ্যাডভোকেট সামসুর রহমান পারভেজ। আদালতের বিচারক আহসানুল হক মামলাটি গ্রহণ করে পরে আদেশ দেয়ার দিন রেখেছেন।

এছাড়াও ডেইলি স্টার সম্পাদক মাহফুজ আনামের বিরুদ্ধে ঢাকা, লক্ষ্মীপুর, চট্টগ্রাম ও কক্সবাজারের আদালতে পাঁচটি মামলা দায়ের করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, গেলো ৩ ফেব্রুয়ারি ডেইলি স্টারের ২৫তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে একটি বেসরকারি টিভিতে পত্রিকাটির সম্পাদক মাহফুজ আনাম বলেন, ২০০৭-০৮ সালে সেনাসমর্থিত তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সময় সেনা গোয়েন্দা সংস্থা ডিজিএফআইয়ের দেয়া বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বিরুদ্ধে বিভিন্ন দুর্নীতির খবর যাচাই না করেই তারা ছেপেছিলেন।

মাহফুজ আনাম আরো জানান, যাচাই না করে এ ধরনের খবর ছাপা তার সাংবাদিকতা জীবনের সবচেয়ে বড় ভুল কাজ ছিল।

খবরটি শেয়ার করুন

Post Comment