অর্ধশতক পর মিয়ানমারে প্রথম বেসামরিক প্রেসিডেন্ট থিন কিয়াও

অনলাইন ডেস্ক –

Myanmar

মিয়ানমারের পার্লামেন্ট ৫০ বছরের সামরিক শাসনের পরে প্রথম বেসামরিক প্রেসিডেন্ট নির্বাচন করেছে থিন কিয়াওকে। কিয়াও গত নভেম্বরে নির্বাচনে নিরঙ্কুশ সংখ্যাগরিষ্ঠতা পাওয়া এনএলডি নেত্রী অং সান সু চির ঘনিষ্ঠ ব্যক্তি হিসেবে পরিচিত।

থিন কিয়াও পার্লামেন্টের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে এনএলডির এক প্রার্থী  ও সামরিক বাহিনীর এক প্রার্থীকে পরাজিত করেছেন। পার্লামেন্টের ৬৫২ টি ভোটের মধ্যে ৩৬০ টি পেয়েছেন থিন কিয়াও। দ্বিতীয় হয়েছেন সামরিক বাহিনীর মনোনীত মিন্ত সুয়ে, তিনি ২০০ ভোট পেয়েছেন। এনএলডির আরেক প্রার্থী হেনরি ভ্যান থিও ৭৯ ভোট পেয়ে তৃতীয় হয়েছেন। পরাজিত দুইজন যথাক্রমে প্রথম ও দ্বিতীয় ভাইস প্রেসিডেন্ট হিসেবে দায়িত্ব পালন করবেন।

সাংবিধানিক বাধ্যবাধকতার জন্য নির্বাচনে দাঁড়াতে পারেননি অং সান সু চি। মিয়ানমারের সংবিধান অনুযায়ী কারো সন্তান বিদেশি নাগরিক হলে দেশটির প্রেসিডেন্ট হতে পারবে না। সামরিক জান্তা সু চির প্রেসিডেন্ট হওয়া ঠেকানোর জন্য এই ব্যবস্থা গ্রহণ করেছিল বলে ধারণা করা হয়। তবে নির্বাচনে নিরঙ্কুশ সংখ্যাগরিষ্ঠতা পাওয়ার পর সু চি বলেছিলেন, তার অবস্থান প্রেসিডেন্টের উপরে হবে। – বিবিসি

খবরটি শেয়ার করুন

Post Comment