বান্দরবানে ইউপি’র পুনঃনির্বাচনের দাবীতে রাঙ্গামাটিতে বিক্ষোভ-সমাবেশ

রাঙ্গামাটি রিপোর্ট –

images

 

বান্দরবানে ইউপি নির্বাচনে প্রশাসনের যোগসাজশে জাল ব্যালট পেপারের মাধ্যমে আওয়ামী লীগের ব্যাপক ভোট ডাকাতি এবং লামার গজালিয়ায় জন সংহতি সমিতি ও পিসিপি’র সদস্যদের ওপর হামলার প্রতিবাদে বুধবার রাঙ্গামাটিতে বিক্ষোভ-সমাবেশ করা হয়েছে।

বক্তারা বান্দরবানে আওয়ামী লীগ কর্তৃক ছাপানো নকল ব্যালট পেপারের মাধ্যমে জালিয়াতির নির্বাচন বাতিল করে গজালিয়া ইউপিসহ ২৫টি ইউপিতে পুনঃরায় নির্বাচন ও লামায় জন সংহতি সমিতি ও পিসিপি’র সদস্যদের ওপর হামলাকারীদের গ্রেফতারের দাবী জানান। অন্যথায় পার্বত্য চট্টগ্রামের জনসগণকে সাথে নিয়ে বৃহত্তর আন্দোলনের ঘোষণা দিতে বাধ্য হবে।

বক্তারা হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করে বলেন, বান্দরবানের মত রাঙ্গামাটিতে ইউপি নির্বাচনে ভোট জালিয়াতি করা হলে পার্বত্য চট্টগ্রামে আগুন জ্বলবে। তার জন্য দায় সরকারকে নিতে হবে।

পার্বত্য চট্টগ্রাম জন সংহতি সমিতির রাঙ্গামাটি শাখার উদ্যোগে জেলা প্রশাসন কার্যালয় চত্বরে প্রতিবাদ সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন পার্বত্য চট্টগ্রাম জন সংহতি সমিতির জেলা শাখার সভাপতি সুবর্ণ চাকমা। প্রধান বক্তা ছিলেন জন সংহতি সমিতির কেন্দ্রীয় নেতা উদয়ন ত্রিপুরা।

সমাবেশে বক্তব্য রাখেন পার্বত্য চট্টগ্রাম মহিলা সমিতির কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক সুপ্রভা চাকমা, পাহাড়ি ছাত্র পরিষদের কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক জুয়েল চাকমা, পার্বত্য চট্টগ্রাম যুব সমিতির জেলা শাখার সভাপতি টোয়েন চাকমা। স্বাগত বক্তব্য রাখেন পার্বত্য চট্টগ্রাম জন সংহতি সমিতির জেলা শাখার সাংগঠনিক সম্পাদক শরৎ জ্যোতি চাকমা।

এর আগে একটি বিক্ষোভ মিছিল সংগঠনের জেলা কার্যালয় থেকে শুরু হয়ে বনরূপা এলাকা ঘুরে গিয়ে জেলা প্রশাসন কার্যালয় চত্বরে সমাবেশ করা হয়।

সমাবেশে বক্তারা অভিযোগ করে আরো বলেন, গত ২৩ এপ্রিল বান্দরবানের ইউপি নির্বাচনে বিভিন্ন কেন্দ্রে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ পূর্ব-পরিকল্পনা অনুসারে শত শত নকল ব্যালট পেপার ছাপিয়ে প্রশাসনের যোগসাজশে আওয়ামী সন্ত্রাসীরা কেন্দ্র দখল করে ভোট জালিয়াতির উৎসবে মেতে উঠেছিল। ছাত্রলীগ-যুবলীগের তাণ্ডবের কারণে সাধারণ ভোটাররা কেউ ভোট দিতে পারেননি।

 

খবরটি শেয়ার করুন

Post Comment