হাজী আবদুল বারী মাতব্বরের মৃত্যুবার্ষিকীতে স্মৃতিবৃত্তি প্রদান

প্রেস রিপোর্ট

BK

রাঙ্গামাটিতে শহীদ আবদুল আলী একাডেমি স্কুল এন্ড কলেজের প্রতিষ্ঠাতা মরহুম হাজী আবদুল বারী মাতব্বর এর মৃত্যুবার্ষিকী ও স্মৃতিবৃত্তি প্রদান অনুষ্ঠান বৃহস্পতিবার (১২ মে) বিদ্যালয় মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত হয়।

রাঙ্গামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদ সদস্য ও শহীদ আবদুল আলী একাডেমী স্কুল এন্ড কলেজ পরিচালনা কমিটির সভাপতি হাজী মো: মুছা মাতব্বরের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসাবে রাঙ্গামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান বৃষ কেতু চাকমা ও বিশেষ অতিথি হিসেবে রাঙ্গামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদের মুখ্য নির্বাহী কর্মকর্তা এসএম জাকির হোসেন, নির্বাহী কর্মকর্তা ছাদেক আহমেদ, হিসাব ও নিরীক্ষা কর্মকর্তা আবুল মনসুর চৌধুরী,  রাঙ্গামাটি প্রেস ক্লাবের সভাপতি সাখাওয়াৎ হোসেন রুবেল, শহীদ আবদুল আলী একাডেমি স্কুলের প্রাক্তন প্রধান শিক্ষক সত্য নন্দী, এসএমসি কমিটির সদস্য মো: ছাওয়াল, স্কুলের প্রতিষ্ঠাতা হাজী আবদুল বারী মাতব্বর-এর পুত্র হাজী হারুন মাতব্বর উপস্থিত ছিলেন। অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য দেন শহীদ আবদুল আলী একাডেমি স্কুল এন্ড কলেজের প্রধান শিক্ষক নজরুল ইসলাম চৌধুরী।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান বলেন, বর্তমান সরকার শিক্ষা বান্ধব সরকার। শিক্ষার মান উন্নয়নে এ সরকার বিভিন্ন উন্নয়নমূলক পরিকল্পনা গ্রহণ ও বাস্তবায়ন করছে। তারমধ্যে বছরের ১ম দিনে শিক্ষার্থীদের হাতে বিনামূল্যে বই প্রদান, শিক্ষানীতি প্রণয়ন, শিক্ষাবৃত্তি প্রদান, বিদ্যালয় সংষ্কার, আবাসিক বিদ্যালয় নির্মাণসহ বিভিন্ন পদক্ষেপ উল্লেখযোগ্য।

তিনি শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে বলেন, সরকারের এ সুযোগগুলো কাজে লাগিয়ে শিক্ষার্থীদের সুশিক্ষায় শিক্ষিত ও জ্ঞানী হতে হবে। তিনি বলেন, একটি সমৃদ্ধশালী দেশ গড়তে হলে শিক্ষা এবং শিক্ষিত মানুষের প্রয়োজন। তিনি শহীদ আবদুল আলী একাডেমি স্কুল এন্ড কলেজের এ শিক্ষাবৃত্তি প্রতিবছর সচল রাখতে পরিষদ হতে ৫ লক্ষ টাকা ও বিদ্যালয়ে দুইশত জোড়া বেঞ্চ প্রদানের প্রতিশ্রুতি ব্যক্ত করেন।

পরে অতিথিরা বিদ্যালয়ের ২০ জন মেধাবী শিক্ষার্থীকে দারিদ্র সহায়তা বৃত্তি ও ১০ জনকে মেধাবৃত্তি প্রদান করেন।

অরুনেন্দু ত্রিপুরা
১২/০৫/২০১৬
জন সংযোগ কর্মকর্তা
রাঙ্গামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদ
ছবি এবং সংবাদ : লিটন শীল।

খবরটি শেয়ার করুন

Post Comment