খাগড়াছড়িতে ১০ম পার্বত্য নারী সম্মেলন অনুষ্ঠিত

খাগড়াছড়ি রিপোর্ট –

Women

খাগড়াছড়ি স্থানীয় সংসদ সদস্য কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা বলেছেন, জেন্ডার ন্যায্যতা নিশ্চিত করণে বর্তমান সরকারের প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার সরকার খুবই আন্তরিকভাবে নারীর ক্ষমতায়নে উপযোগী পদক্ষেপ বাস্তবায়ন করছে।

তিনি শনিবার (২৮ মে) সকালে নারীর প্রতি সহিংসতা প্রতিরোধে জেন্ডার ন্যায্যতা নিশ্চিত করার দাবীতে উইমেন্স রিসোর্স নেটওয়ার্কের আয়োজনে খাগড়াছড়ি ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠী সাংস্কৃতিক ইনস্টিটিউট মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত ১০ম পার্বত্য নারী সম্মেলনে প্রধান অতিথি’র বক্তব্যে এ কথা বলেন।

তিনি বলেন, বর্তমান সরকার ইতোমধ্যে মহান জাতীয় সংসদসহ তিন পার্বত্য জেলা পরিষদ, উপজেলা পরিষদে নারীর নেতৃত্ব নিশ্চিত করেছে। এমনকি মহান সংসদে নারী স্পিকার নিযুক্ত করেছেন। এসময় তিনি নারী অধিকার নিশ্চিত করণে নারীদের পাশাপাশি পুরুষদের সচেতনতা বৃদ্ধিতে কাজ করার আহবানসহ নারী বান্ধব ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়তে বর্তমান সরকার বদ্ধ পরিকর বলে জানিয়েছেন।

এর আগে প্রধান অতিথি কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা এমপি মঙ্গল প্রদীপ জ্বেলে সম্মেলনের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন ।

পরে সম্মেলনের আলোচনা সভায় উইমেন্স রিসোর্স নেটওয়ার্কের সভানেত্রী শেফালিকা ত্রিপুরা’র সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি হিসেবে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন রাঙ্গামাটি চাকমা রাজা ব্যারিষ্টার দেবাশীষ রায়, খাগড়াছড়ি মং সার্কেল চীফ রাজা সাচিংপ্রু চৌধুরী, আঞ্চলিক পরিষদ সদস্য রক্তোৎপল ত্রিপুরা প্রবীণ শিক্ষাবিদ বোধিসত্ত্ব দেওয়ান, জাতীয় মানবাধিকার কমিশনের সদস্য নিরূপা দেওয়ান, রাঙ্গামাটি হিমাওয়ান্তি’র পরিচালক টুকু তালুকদার ও বান্দরবান বোমাং সার্কেলের পক্ষে বক্তব্য রাখেন ডনাইপ্রু মারমা নেলী প্রমুখ।

সম্মেলনে বক্তারা সংসদে তিন পার্বত্য জেলায় নারী প্রতিনিধিত্ব নিশ্চিত করা, নারী ও শিশুদের স্বাস্থ্য ও নিরাপদ জীবন নিশ্চিত করা, আত্ম-কর্মসংস্থানমূলক কর্মসূচী গ্রহণ, মানবাধিকার নিশ্চিত করা, প্রথাগত শাসন ব্যবস্থায় নারী প্রতিনিধি নিশ্চিত করা এবং নারী নীতিমালায় নারীদের অধিকার অন্তর্ভুক্তকরণের দাবী জানান।

সম্মেলনে তিন পার্বত্য জেলার নারী প্রতিনিধি ও নারী নেত্রী ছাড়াও নানা শ্রেণী-পেশার নারীরা অংশ নেন।

খবরটি শেয়ার করুন

Post Comment