বিলাইছড়িতে কৃষকদের ফল চাষের প্রশিক্ষণ ও চারা বিতরণ

বিলাইছড়ি রিপোর্ট –

Bilai

রাঙ্গামাটির বিলাইছড়ি উপজেলায় রাঙ্গামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদের মিশ্র ফল বাগান স্থাপন প্রকল্পের আওতায় উপকারভোগী ৭২ কৃষক পরিবারকে ফল চাষের আধুনিক কলাকৌশল বিষয়ক দিনব্যাপী প্রশিক্ষণসহ ফলদ বৃক্ষের চারা বিতরণ করা হয়েছে।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন রাঙ্গামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদের সদস্য রেমলিয়ানা পাংখোয়া।

বিলাইছড়ি উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান শুভমঙ্গল চাকমার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি কৃষি সম্প্রসারণ বিভাগের উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা সুদর্শন সিকদার, ৩ নং ফারুয়া ইউনিয়নের নব নির্বাচিত চেয়ারম্যান বিদ্যালাল তংচঙ্গ্যা, বিলাইছড়ি উপজলা সিএইচটি হেডম্যান এসোসিয়েশনের সভাপতি শান্তি বিজয় চাকমা উপস্থিত ছিলেন।

অনুষ্ঠানে বক্তারা বলেন, পার্বত্য চট্টগ্রাম এলাকায় এখনও অনেক পতিত জমি রয়েছে। সেখানে সঠিক ও কার্যকর পরিকল্পনার মাধ্যমে ফলদ বৃক্ষের বাগান স্থাপন করে পতিত জমি চাষের আওতায় আনার সুযোগ রয়েছে। এতে ফল উৎপাদন বৃদ্ধি পাবে যা এ জেলার বসবাসরত মানুষের দারিদ্র্য বিমোচনে বিরাট অবদান রাখবে।

বক্তারা আরো বলেন, প্রকৃতিতে যত প্রকার খাদ্য দ্রব্য উৎপাদিত হয় তার মধ্যে ফলই বেশি পুষ্টিকর এবং সুস্বাদু। এর মধ্যে রয়েছে মানব দেহের প্রয়োজনীয় সব গুরুত্বপূর্ণ পুষ্টি উপাদান।  সুস্থ, সবল ও কর্মক্ষম জাতি গঠনে সুষম খাদ্য তথা ফলের গুরুত্ব অপরিসীম। তাই দানা জাতীয় খাদ্য উৎপাদনের পাশাপাশি ফল উৎপাদনে সমগুরুত্ব আরোপ করা প্রয়োজন।

বক্তারা বলেন, জাতীয় অর্থনীতিতে তথা দারিদ্র্য বিমোচনে ফলের অবদান অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। উন্নত প্রযুক্তির মাধ্যমে ফল চাষ করলে আমাদের দেশ হবে উন্নত। কাজেই স্বল্প পরিসরে ফল চাষ করে দারিদ্র্য বিমোচন সম্ভব।

রাঙ্গামাটি কৃষি সম্প্রাসারণ অধিদপ্তরের সহযোগিতায় বৃহস্পতিবার (১৪ জুলাই) সকালে বিলাইছড়ি উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে কৃষাণ-কৃষাণীদের প্রশিক্ষণ শেষে তাদের কাছে ফলদ চারা বিতরণ করা হয়।

খবরটি শেয়ার করুন

Post Comment