থেরেসা মে যুক্তরাজ্যের নতুন প্রধানমন্ত্রী

অনলাইন ডেস্ক –

Theresa

যুক্তরাজ্যের নতুন প্রধানমন্ত্রী হিসাবে বুধবার দায়িত্ব নিয়েছেন থেরেসা মে। দেশটির ইতিহাসে দ্বিতীয় নারী হিসাবে তিনি এই পদে এলেন। জনসেবা করাই তার জীবনের একটি অংশ, বলেছেন থেরেসা মে।

থেরেসা মের জন্ম ১৯৫৬ সালে, পড়াশোনা অক্সফোর্ডে। রাজনীতির আগে ব্যাংকিং খাতে কর্মজীবন।

১৯৯৭ সালে প্রথম এমপি নির্বাচিত হন। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী নির্বাচিত হন ২০১০ সালে। ১৯৮২ সালের পর তিনিই সবচেয়ে বেশিদিন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করেছেন।

ইউরোপীয় ইউনিয়ন ছাড়ার প্রশ্নে গণভোটের পর, প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব থেকে পদত্যাগের ঘোষণা দেন ডেভিড ক্যামেরন। তার স্থলাভিষিক্ত হলেন কনজারভেটিভ নেতা টেরেসা মে। তিনি বলছেন, দায়িত্ব পেয়ে নিজেকে সম্মানিত আর বিনয়ী বোধ করছেন।

আনুষ্ঠানিকভাবে ব্রিটেনের প্রধানমন্ত্রীর হিসেবে অভিষিক্ত হওয়ার পরপরই ‘উত্তম ব্রিটেনের’ অঙ্গীকার করেছেন টেরিজা মে। ঘোষণায় তিনি জানান, এমন ব্রিটেন গড়ে তোলা হবে যেখানে সবার জন্য কাজ করা হবে।

বুধবার (১৩ এপ্রিল) রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথের কাছ থেকে নতুন সরকার গঠনের আমন্ত্রণ পেয়ে রানির প্রাসাদ বাকিংহাম প্যালেসে যান তিনি। সেখান থেকে নতুন প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব নিয়ে ১০ ডাউনিং স্ট্রিটের বাইরে নিজের প্রথম ভাষণে উত্তম ব্রিটেন তৈরির কথা জানান তিনি।

টেরিজা মে মার্গারেট থ্যাচারের পর ব্রিটেনের দ্বিতীয় নারী প্রধানমন্ত্রী। এর আগে বাকিংহাম প্যালসে গিয়ে রাণীর কাছে আনুষ্ঠানিকভাবে পদত্যাগপত্র জমা দেন সদ্য বিদায়ী প্রধানমন্ত্রী ডেভিড ক্যামেরন।

খবরটি শেয়ার করুন

Post Comment