সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদ নির্মূলে রাঙ্গামাটিতে যুবলীগের আলোচনা সভা

স্টাফ রিপোর্ট –

Meeting

‘জঙ্গিবাদ খতম কর, বাংলাদেশ রক্ষা কর’ এ স্লোগানকে সামনে রেখে সন্ত্রাস ও নৈরাজ্যের বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধ আন্দোলন ও জঙ্গিবাদ নির্মূল করার লক্ষ্যে রাঙ্গামাটি জেলা যুবলীগের উদ্যোগে বৃহস্পতিবার (২১ জুলাই) আওয়ামী লীগের দলীয় কার্যালয়ে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

রাঙ্গামাটি জেলা যুবলীগের সভাপতি ও রাঙ্গামাটি পৌরসভার মেয়র মো: আকবর হোসেন চৌধুরীর সভাপতিত্বে ও জেলা যুবলীগ সাধারণ সম্পাদক মো: নূর মোহাম্মদ কাজলের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন কেন্দ্রীয় যুবলীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য সৈয়দ মাহমুদুল হক।

আলোচনা সভায় বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন কেন্দ্রীয় যুবলীগের ত্রাণ বিষয়ক সস্পাদক আলহাজ জাফর আহমদ, উপ-সম্পাদক আব্দুল্লাহ আল মামুন চৌধুরী, উপ-সম্পাদক মীর মোহাম্মদ মহিউদ্দীন।

এতে শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন, রাখেন জেলা যুবলীগের সহ-সভাপতি মো: শহীদুল আলম স্বপন, সাংগঠনিক সম্পাদক মানিক দাশ, সদর থানা যুবলীগের সভাপতি মো: আবু মুছা, শহর যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক মো: আব্দুল ওহাব খান, কাউখালী উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক মো: নাজিম উদ্দিন, কাপ্তাই উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক মো: তানভীর আহম্মেদ, বিলাইছড়ি উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক ফিরোজ আল মাহমুদ, লংগদু উপজেলা যুবলীগের সাধারন সম্পাদক মো: শফিকুল ইসলাম, নানিয়ারচর উপজেলা যুবলীগের সাধারন সম্পাদক ঝিল্লোল মজুমদার প্রমুখ।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে কেন্দ্রীয় আওয়ামী যুবলীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য সৈয়দ মাহমুদুল হক বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশ যখন এগিয়ে যাচ্ছে, ঠিক তখন বিএনপি-জামাত জোটের মদদপুষ্ট স্বাধীনতা বিরোধীরা বহির্বিশ্বে বাংলাদেশের ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন করতে ষড়যন্ত্র শুরু করেছে। এসব ষড়যন্ত্রের অংশই হচ্ছে গুলশানে জঙ্গি হামলা করে দেশী-বিদেশী নাগরিকদের হত্যাকাণ্ড চালানো এবং শোলাকিয়ায় ঈদ জামাতে হামলার পরিকল্পনা। তিনি বলেন, এসব ষড়যন্ত্রকারীদের বিরুদ্ধে সজাগ থেকে জঙ্গি হামলাকারীদের বিরুদ্ধে আন্দোলন গড়ে তুলতে হবে এবং এ অপশক্তিকে রুখে দিতে প্রতিটি উপজেলাসহ বিভিন্ন ওয়ার্ড ও ইউনিয়ন পর্যায়ে জনগণকে সাথে নিয়ে জঙ্গি ঠেকানোর প্রতিরোধ কমিটি করতে হবে।

সভায় যুবলীগের অন্যান্য নেতৃবৃন্দরা বলেন, পার্বত্য চট্টগ্রাম ও সমতল অঞ্চলের মধ্যে অনেক তফাৎ রয়েছে। পাহাড়ের বিভিন্ন গহীন অরণ্যে বিভিন্ন অস্ত্রধারীদের অবস্থান রয়েছে। সেসব সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে ও অবৈধ অস্ত্র উদ্ধার অভিযান শুরু করা-সহ পার্বত্যাঞ্চলে জঙ্গিদের সচেতনতামূলক কর্মসূচি গ্রহণের আহবান জানানো হয় অনুষ্ঠিত সভায়।

খবরটি শেয়ার করুন

Post Comment