স্থানীয় বিচার ব্যবস্থায় জনসাধারণের প্রবেশগম্যতা বিষয়ক প্রশিক্ষণ

প্রেস বিজ্ঞপ্তি –

BLAST

আজ ২৩ শে আগষ্ট ২০১৬ ইং রোজ মঙ্গলবার বাংলাদেশ লিগ্যাল এইড এন্ড সার্ভিসেস ট্রাস্ট (ব্লাস্ট) কর্তৃক রাঙ্গামাটি জেলা ক্রীড়া সংস্থার কনফারেন্স হলে কমিউনিটি লিগ্যাল সার্ভিস প্রকল্পের অধীনে ইউপি চেয়ারম্যান ও সদস্যদের নিয়ে ‘‘স্থানীয় বিচার ব্যবস্থা (গ্রাম আদালত) পদ্ধতিতে জনসাধারণের প্রবেশগম্যতা” বিষয়ক এক দিনের প্রশিক্ষণের আয়োজন করা হয়।

প্রশিক্ষণে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন রাঙ্গামাটি পার্বত্য জেলার সম্মানিত জেলা প্রশাসক জনাব সামসুল আরেফিন। এছাড়া ব্লাস্ট রাঙ্গামাটি ইউনিটের ব্যবস্থাপনা কমিটির সভাপতি এবং বিজ্ঞ সরকারি কৌশুলী (জিপি) এ্যাডভোকেট পরিতোষ কুমার দত্ত, ব্লাস্ট সমন্বয়কারী এ্যাডভোকেট জুয়েল দেওয়ান ও ব্লাস্টের অন্যান্য কর্মকর্তাবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

প্রধান অতিথি তার বক্তব্যে বলেন, বাংলাদেশে তৃণমূল পর্যায়ে স্বয়ংসম্পুর্ণ প্রতিষ্ঠান হচ্ছে ইউনিয়ন পরিষদ, যেখানে ন্যায়বিচার নিশ্চিত করার জন্য রয়েছে গ্রাম আদালত। এই আইনের দ্বারা সব ধর্ম, বর্ণ গোষ্ঠীর জন্য সার্বজনীন একটি বিচার ব্যবস্থা প্রতিষ্ঠা পেয়েছে, যেখানে ফৌজদারী ও দেওয়ানী উভয় ক্ষেত্রে বিরোধ নিষ্পত্তির সুযোগ রয়েছে। তিনি উপস্থিত চেয়ারম্যান ও ইউনিয়ন পরিষদ সদস্যদের প্রশিক্ষণের মাধ্যমে লব্ধ জ্ঞানের প্রায়োগিক দিকটি দেখার জন্য বলেন এবং গ্রাম আদালতের উপর সময়োপযোগী এ প্রশিক্ষণ আয়োজন করার জন্য ব্লাস্টকে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করে প্রশিক্ষণের উদ্বোধন করেন।

ব্লাস্ট সমন্বয়কারী বলেন- গ্রাম আদালতের পাশাপাশি স্থানীয় যে ঐতিহ্যবাহী প্রথাগত বিচার ব্যবস্থার একটা আস্থাশীল ক্ষেত্র রয়েছে, যেখানে উভয় প্রতিষ্ঠানই প্রাতিষ্ঠানিকভাবে তৃণমূল পর্যায়ে এডিআর বা বিকল্প বিরোধ নিষ্পত্তির ক্ষেত্রে কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছে স্ব স্ব বিচারিক নিয়মে, যা তৃণমুল পর্যায়ে ন্যায়বিচার প্রাপ্তির ক্ষেত্র হিসেবে কাজ করছে।

প্রশিক্ষণে স্থানীয় পর্যায়ের বিচার ব্যবস্থা, স্থানীয় পর্যায়ের বিচার ব্যবস্থা কি ও প্রচলিত পদ্ধতি, গ্রাম আদালত, গ্রাম আদালত গঠন, গ্রাম আদালতের পরিচিতি, বর্তমানে বাংলাদেশে গ্রাম আদালতের প্রেক্ষাপট, গ্রাম আদালত আইন, গ্রাম আদালত আইন সম্পর্কে ধারণা, স্থানীয় পর্যায়ের বিচার ব্যবস্থা হিসেবে গ্রাম আদালতের ভূমিকা, গ্রাম আদালত কর্তৃক বিচারযোগ্য মামলা, গ্রাম আদালতের এখতিয়ার ও ক্ষমতা গ্রাম আদালত কর্তৃক সিদ্ধান্ত ও আপিল, গ্রাম আদালতের জরিমানা আদায় ও মামলা হস্তান্তর সালিসি সভা, তথ্য কি, তথ্য প্রাপ্তির যোগ্যতা, তথ্য প্রাপ্তির পদ্ধতি, তথ্য কমিশন সালিসি বোর্ড/মধ্যস্থতা সভার ভূমিকা, স্থানীয় পর্যায়ের বিচার ব্যবস্থা হিসেবে সালিসি বোর্ড/মধ্যস্থতা সভার ভূমিকা, ন্যায় বিচার প্রাপ্তি, আইনের প্রতিকার প্রাপ্তিতে সালিসি বোর্ড/মধ্যস্থতা সভার ভূমিকা সহায়ক আইন হিসেবে তথ্য অধিকার আইন ২০০৯ স্লাইডের মাধ্যমে প্রশিক্ষণের বিষয়বস্তুগুলো তুলে ধরা হয়।

দিন ব্যাপী এ প্রশিক্ষণে সহায়ক হিসেবে আরও ছিলেন ব্লাস্ট রাঙ্গামাটি ইউনিটের সালিশ কর্মকর্তা রাঙাবী তঞ্চঙ্গ্যা, আইনজীবী এ্যাডভোকেট মিলন চাকমা, প্যারালিগ্যাল সুগন্ধি চাকমা ও এডভোকেসি অফিসার কনিম চাকমা ।

তথ্য কমিশন সালিসি বোর্ড/ মধ্যস্থতা সভার ভূমিকা,

স্থানীয় পর্যায়ের বিচার ব্যবস্থা হিসেবে সালিসি বোর্ড/ মধ্যস্থতা সভার ভূমিকা,

ন্যায়বিচার প্রাপ্তি, আইনের প্রতিকার প্রাপ্তিতে সালিসি বোর্ড/ মধ্যস্থতা সভার ভূমিকা,

সহায়ক আইন হিসেবে তথ্য অধিকার আইন ২০০৯,

সালিসি বোর্ড/ মধ্যস্থতা সভার সংজ্ঞা,

সালিসি বোর্ড/ মধ্যস্থতা সভার গঠন ও কার্যাবলী আলোচনা করা হয় এবং প্রশিক্ষণ পরবর্তীতে হ্যান্ডআউট  প্রদান করা হয়। প্রশিক্ষক হিসেবে আরো ছিলেন, এডভোকেট সৌরভ দেওয়ান ও এডভোকেট  মিলন  চাকমা।

প্রশিক্ষণে সার্বিক ব্যবস্থাপনায় ছিলেন এডভোকেসি অফিসার কনিম চাকমা এবং প্যারা লিগ্যাল সুগন্ধি চাকমা। আশিকা, সাস, সিআইপিডি, হিমাওয়ান্তি, উইভ, অনন্যা কল্যাণ সংস্থাসহ বান্দরবানের পার্টনার এনজিওর প্রতিনিধিগণ প্রশিক্ষণে উপস্থিত ছিলেন।

খবরটি শেয়ার করুন

Post Comment