কুদুকছড়িতে সেনাবাহিনী কর্তৃক ক্লাবের জিনিসপত্র লুটের ঘটনায় নিন্দা ও প্রতিবাদ

২৬ আগস্ট ২০১৬
প্রেস বিজ্ঞপ্তি

updf

ইউনাইটেড পিপলস ডেমোক্রেটিক ফ্রন্ট (ইউপিডিএফ)-এর রাঙ্গামাটি জেলা ইউনিটের সংগঠক সচল চাকমা আজ ২৬ আগস্ট ২০১৬, শুক্রবার সংবাদ মাধ্যমে দেওয়া এক বিবৃতিতে সেনাবাহিনী কর্তৃক রাঙ্গামাটি সদর উপজেলার কুদুকছড়ি ইউনিয়নের কুদুকছড়ি উপর পাড়া (আবাসিক) ধারপাত্তি ক্লাবে তালা ভেঙে ঢুকে কম্পিউটারসহ বিভিন্ন জিনিসপত্র লুটের ঘটনায় তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন।

বিবৃতিতে তিনি অভিযোগ করে বলেন, আজ দুপুর আনুমানিক দেড়টার দিকে নান্যাচর জোন থেকে জনৈক মেজরের নেতৃত্বে একদল সেনা সদস্য কুদুকছড়ি উপর পাড়ায় (আবাসিক) হানা দিয়ে গ্রামাবাসীদের গড়ে তোলা সামাজিক ক্লাব ’ধারপাত্তি ক্লাবে’ তালা ভেঙে ঢুকে একটি ডেস্কটপ কম্পিউটার, একটি মনিটর, একটি ইউপিএস, মাল্টিপ্লাগসহ কম্পিউটারে ব্যবহৃত অন্যান্য সরঞ্জাম, কাজী নজরুল ইসলামসহ মনীষিদের ছবি, বাংলাদেশের মানচিত্রসহ বিভিন্ন জিনিসপত্র লুট করে নিয়ে যায়। এ সময় সেনারা ক্লাবে থাকা চেয়ার-টেবিলসহ অন্যান্য জিনিসপত্র ক্লাবের বাইরে ছড়িয়ে-ছিটিয়ে দেয়। সেনারা ক্লাবের পার্শ্ববর্তী জয়দ্বীপ দেওয়ানের বাড়িতে ঢুকে তন্নতন্ন করে তল্লাশি চালিয়ে জিনিসপত্র সম্পূর্ণ তছনছ করে দেয়। দীর্ঘক্ষণ ধরে সেনারা এই তাণ্ডবলীলা চালায়।

বিবৃতিতে সচল চাকমা বলেন, একটি তালাবদ্ধ ঘরে কারো অনুমতি ব্যতিরেকে তালা ভেঙে ঢুকে জিনিসপত্র নিয়ে যাওয়া ডাকাতি ছাড়া আর কিছুই নয়। সেনাবাহিনীর কাছ থেকে জনগণ এ ধরনের ন্যাক্কারজনক কাজ কিছুতেই আশা করে না।

বিবৃতিতে তিনি অবিলম্বে লুণ্ঠিত মালামাল ফেরত দানসহ উক্ত ঘটনায় জড়িত সেনা সদস্যদের আইনের আওতায় আনার দাবি জানিয়েছেন।

বার্তা প্রেরক
বাবলু চাকমা
প্রচার বিভাগ
ইউপিডিএফ
রাঙ্গামাটি জেলা ইউনিট।

খবরটি শেয়ার করুন

Post Comment