দীপংকর তালুকদারকে কাউখালীতে বিশাল গণ সংবর্ধনা

কাউখালী রিপোর্ট –

dt

আগামী নির্বাচনে ভোট ডাকাতি বন্ধ করতে আঞ্চলিক সংগঠনের নামে অবৈধ অস্ত্রধারীদের বিরুদ্ধে সোচ্চার হতে পাহাড়ি বাঙালি সকল সম্প্রদায়কে এগিয়ে আসার আহবান জানিয়েছেন সাবেক প্রতিমন্ত্রী ও বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির নব নির্বাচিত কার্যনির্বাহী সদস্য দীপংকর তালুকদার। তিনি বলেন, আগামী নির্বাচন আর বেশী দূরে নয়। আগামী নির্বাচনকে সামনে রেখে আমাদের নেতা-কর্মীদের আরো বেশী কাজ করতে হবে। অবৈধ অস্ত্রধারীরা যাতে সাধারণ মানুষকে আর ভয় ভীতি দেখাতে না পারে, সেদিকে লক্ষ্য রেখে আগামী নির্বাচনের জন্য কাজ করতে হবে। দলীয় নেতাকর্মীদেরকে তৃণমুল পর্যায়ে গিয়ে কাজ করারও আহবান জানান তিনি।

বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটিতে দীপংকর তালুকদার কার্যনির্বাহী সদস্য নির্বাচিত হওয়ায় সোমবার (৩১ অক্টোবর) রাঙ্গামাটির কাউখালী উপজেলা আওয়ামী লীগের উদ্যোগে আয়োজিত গণ সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন।

কাউখালী উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি ও জেলা পরিষদ সদস্য অংসুইপ্রু চৌধুরীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত গণ সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন বিশেষ অতিথি রাঙ্গামাটি জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি চিংকিউ রোয়াজা, বন পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক অভয় প্রকাশ চাকমা, কাপ্তাই উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অংসুছাইন চৌধুরী, কাউখালী উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান এস, এম চৌধুরী, কলমপতি ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান ক্যজাই মারমা। স্বাগত বক্তব্য রাখেন বেতবুনিয়া ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান ক্যজাই মারমা।

দীপংকর তালুকদার বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পার্বত্য রাঙ্গামাটির মানুষকে ভালোবাসেন বলেই আমাকে এ পদ দিয়েছেন। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা এ পদটি পার্বত্য রাঙ্গামাটিবাসীকে উপহার দিয়েছেন। এই পদ আমি পার্বত্য মানুষের উন্নয়নের জন্য কাজে লাগাবো। দলীয় ফোরামের মিটিং-এ আমি শুধু রাঙ্গামাটিবাসী নয়, পুরো পার্বত্যবাসীর জন্য কথা বলতো পারবো।

তিনি পার্বত্য অঞ্চলের অবৈধ অস্ত্রের কথা তুলে ধরে বলেন, পার্বত্য অঞ্চলে পাহাড়ি বাঙালি কেউ শান্তিতে নেই। পার্বত্য অঞ্চলের মানুষে অবৈধ অস্ত্রধারীদের হাতে জিম্মি হয়ে আছে। এই জিম্মি দশা থেকে মুক্ত হতে আমাদেকে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে। শুধু প্রশাসনের দিকে চেয়ে থাকলে হবে না। প্রশাসনের পাশাপাশি সামাজিক আন্দোলনের মাধ্যমে অবৈধ অস্ত্রধারীদের বিরুদ্ধে সকলকে ঐক্যবদ্ধ ভাবে কাজ করার আহবান জানান।

এর আগে দীপংকর তালুকদার যখন কাউখালী এসে পৌঁছান তখন হাজার হাজার নেতাকর্মী তাকে উষ্ণ অভ্যর্থনা জানান। কাউখালীর প্রবেশ মুখ থেকে মোটর সাইকেল শোভাযাত্রা সহকারে তাকে কাউখালী সদরে নিয়ে আসেন। অনুষ্ঠানের পূর্বে কাউখালীর বিভিন্ন সংগঠন থেকে তাকে শতশত ফুলের মালা ও তোড়া দিয়ে অভিনন্দন জানানো হয়।

 

খবরটি শেয়ার করুন

Post Comment