রাঙ্গামাটিতে পার্বত্য বাঙালি ছাত্র পরিষদের সংবাদ সম্মেলন

রাঙ্গামাটি রিপোর্ট –

pbcp

পার্বত্য বাঙালি ছাত্র পরিষদের প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে মঙ্গলবার রাঙ্গামাটিতে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে নেতৃবৃন্দ বলেন, পার্বত্য এলাকার যে কোন আন্দোলন কর্মসূচি পার্বত্য এলাকা থেকেই ঘোষণা করা হবে।  পার্বত্য এলাকার বাইরে থেকে যারা ই-মেইলে প্রেস বিজ্ঞপ্তি দিয়ে হরতাল অবরোধসহ আন্দোলনের কর্মসূচি দেয় তাদেরকে বয়কট করা হবে।

সংবাদ সম্মেলনে নেতৃবৃন্দ সংশোধিত পার্বত্য ভূমি বিরোধ নিষ্পত্তি কমিশন আইন বাতিলের দাবীতে আগামী ৯ নভেম্বর পার্বত্য বাঙালি ছাত্র পরিষদ রাঙ্গামাটিতে কালো পতাকা মিছিল নিয়ে বিক্ষোভ সমাবেশের  ঘোষণা দেন।

শহরের কাঠালতলীস্থ পার্বত্য বাঙ্গালি ছাত্র পরিষদ জেলা শাখার কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন পার্বত্য ছাত্র পরিষদের কেন্দ্রীয় সভাপতি সাব্বির আহমেদ। এসময় অন্যান্যর মধ্যে উপস্থিত ছিলেন পার্বত্য ভূমি রক্ষা আন্দোলনের আহবায়ক জাহাঙ্গীর আলম মুন্না, পার্বত্য বাঙালি ছাত্র পরিষদ জেলা শাখার সভাপতি মো: ইব্রাহিম, সাধারণ সম্পাদক মো: জাহাঙ্গীর আলম ও সাংগঠনিক সম্পাদক আসাদুর জ্জামান খান।

সংবাদ সম্মেলনে আরো বলা হয়, যারা পার্বত্য চট্টগ্রামে পরিশ্রম করে রাজপথে থেকে বাঙালিদের অধিকার আদায়ের জন্য আন্দোলন সংগ্রাম করে তাদেরকে উপদেষ্টা পরিষদ নামধারী গুটি কয়েক নেতা যারা ঢাকা বা কুমিল্লায় বসে থেকে প্রেস রিলিজ দিয়ে তাদের ইচ্ছামত কর্মসূচি দিয়ে প্রয়োজনের সময় কাছে টেনে নিয়ে তাদের দিয়ে আন্দোলন সংগ্রাম করানো, আর প্রয়োজন ফুরিয়ে গেলে তাদের অব্যাহতি বা বহিষ্কার করার নীতি থেকে বাঙালি ছাত্র পরিষদকে বেরিয়ে আসতে হবে। কর্মসূচি ঘোষণা করে তারা তো পার্বত্য এলাকায় কোন প্রকার হরতাল বা অবরোধ কর্মসূচি পালন করতেও আসেন না।

সংবাদ সম্মেলনে পার্বত্য ছাত্র পরিষদের কেন্দ্রীয় সভাপতি সাব্বির আহমেদ বলেন, তিনি এখনও বৈধ সভাপতি। কারণ তার বিরুদ্ধে যেহেতু কোন অভিযোগ আনা হয়নি, তিনি পদত্যাগও করেননি এবং তার বিরুদ্ধে আনিত কোন অভিযোগের কারণে তাকে কোন শোকজও করা হয়নি বা কোন কারণ দর্শনোর কথাও বলা হয়নি। তার সাথে বা কেন্দ্রীয় কমিটির সাথে কোন সভাও করা হয়নি এবং কেউ তার বিরুদ্ধে কোন অনাস্থা প্রস্তাবও আনেনি, তাই তিনি এখনো পার্বত্য বাঙালি ছাত্র পরিষদের বৈধ কেন্দ্রীয় সভাপতি।

খবরটি শেয়ার করুন

Post Comment