রাঙ্গামাটিতে সেনাবাহিনী পরিচালিত কম্পিউটার প্রশিক্ষণ কোর্সের সনদ বিতরণ

রাঙ্গামাটি রিপোর্ট –

slarma

মঙ্গলবার রাঙ্গামাটি সদর জোনের (১৬ বীর) উদ্যোগে পরিচালিত কম্পিউটার প্রশিক্ষণ কোর্সে অংশ নেয়া প্রশিক্ষণার্থীদের মাঝে সনদ বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে পার্বত্য চট্টগ্রাম আঞ্চলিক পরিষদ চেয়ারম্যান জ্যোতিরিন্দ্র বোধিপ্রিয় লারমা (সন্তু লারমা) বলেছেন সেনাবাহিনী নিজ দায়িত্ব পালনের পাশাপাশি সামজিক উন্নয়নেও ভূমিকা রাখছে।

অনুষ্ঠানে তিনি বলেন, সেনাবাহিনী জনগণের সঙ্গে সম্পৃক্ত হয়ে শিক্ষার উন্নয়ন ও দক্ষ মানব সম্পদ গঠনসহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করছে। মানব সম্পদ উন্নয়নে যে কম্পিউটার প্রশিক্ষণ কোর্স পরিচালনা করে যাচ্ছে সেনাবাহিনী, এ উদ্যোগ নিঃসন্দেহে পার্বত্য চট্টগ্রামের উন্নয়নে ভূমিকা রাখবে। তিনি পার্বত্যাঞ্চলে জনগণের উন্নয়নে সেনাবাহিনীর কর্মতৎপরতা উত্তরোত্তর বৃদ্ধি পাবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

রাঙ্গামাটি রিজিয়নের প্রান্তিক হল রুমে আয়োজিত অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন, রাঙ্গামাটি রিজিয়ন কমান্ডার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মো. সানাউল হক ও জেলা প্রশাসক মো. মানজারুল মান্নান। স্বাগত বক্তব্য রাখেন, রাঙ্গামাটি সদর জোনের ভারপ্রাপ্ত অধিনায়ক মেজর মো. নাঈমুল হাসান।

অনুষ্ঠান শেষে সেনাবাহিনীর রাঙ্গামাটি সদর জোন কর্তৃক পরিচালিত ১৮৭ জন কম্পিউটার প্রশিক্ষণার্থীদের মাঝে সনদপত্র বিতরণ করেন অতিথিবৃন্দ।

অনুষ্ঠানে জানানো হয়, ‘দক্ষ ও যোগ্য মানব সম্পদ – সমৃদ্ধ দেশ’ এ স্লোগান নিয়ে সেনাবাহিনীর উদ্যোগে রাঙ্গামাটিতে ২০১২ সালের ২৯ জানুয়ারি হতে কম্পিউটার প্রশিক্ষণ কোর্স পরিচালিত হচ্ছে। এই প্রশিক্ষণ কর্মসূচির আওতায় এ পর্যন্ত ২৩টি ব্যাচে জেলার ৪৭৩ জন বেকার ও শিক্ষিত যুবক-যুবতী প্রশিক্ষণ নিয়েছে। চলতি বছর জানুয়ারি থেকে ৮ নভেম্বর পর্যন্ত প্রশিক্ষণ নিয়েছে মোট ১২০ জন। মঙ্গলবার মোট ২০১ জনকে সনদ বিতরণ করা হয়।

অনুষ্ঠানে সন্তু লারমা আরো বলেন, দক্ষ মানব সম্পদ গঠনে শিক্ষার কোনো বিকল্প নেই। শিক্ষার জন্য কম্পিউটার অন্যতম বাহন। তাই সেনাবাহিনীর উদ্যোগে পরিচালিত কম্পিউটার প্রশিক্ষণ এ অঞ্চলের মানসম্মত শিক্ষায় গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে।

খবরটি শেয়ার করুন

Post Comment