প্রেস বিজ্ঞপ্তি

পিসিপি’র মাটিরাঙ্গা ডিগ্রী কলেজ শাখার ৫ম কাউন্সিল সম্পন্ন

২০  নভেম্বর ২০১৬

প্রেস বিজ্ঞপ্তি –

press
স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে অগণতান্ত্রিক “১১ নিদের্শনা” বাতিল কর! পার্বত্য চট্টগ্রামের একমাত্র রাজনৈতিক সমাধান পূর্ণ স্বায়ত্তশাসন প্রতিষ্ঠার আন্দোলনে ছাত্র সমাজ ঐক্যবদ্ধ হয়ে লড়াই সংগ্রাম জোরদার করুন – এই আহ্বানে বৃহত্তর পাবর্ত্য চট্টগ্রাম পাহাড়ি ছাত্র পরিষদ (পিসিপি) মাটিরাংগা ডিগ্রী কলেজ শাখার ৫ম কাউন্সিল সম্পন্ন হয়েছে।

আজ রবিবার (২০ নভেম্বর ২০১৬) সকাল ১০ টায় মাটিরাঙ্গা সদরে এই কাউন্সিল অনুষ্ঠিত হয়। কাউন্সিল অধিবেশন শুরুতে গণতান্ত্রিক আন্দোলনে যারা শহীদ হয়েছেন, পঙ্গুত্ব বরণ করেছেন ও যারা কারাবরণ করছেন তাদের সকলের প্রতি শ্রদ্ধা ও সম্মান জানিয়ে এক মিনিট নীরবতা পালন করা হয়।

কাউন্সিলে পিসিপি’র মাটিরাঙ্গা ডিগ্রি কলেজ শাখার সহ-সভাপতি সম্পাদক সন্তোষ ত্রিপুরার সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক নয়ন চাকমার সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন ইউনাইটেড পিপলস ডেমোক্রেটিক ফ্রন্ট (ইউপিডিএফ)-এর মাটিরাংগা ও গুইমারা উপজেলার সংগঠক ক্যায়চিং মারমা, পিসিপি’র খাগড়াছড়ি জেলা শাখার অর্থ সম্পাদক জহেল চাকমা, খাগড়াছড়ি সরকারি কলেজ শাখা থুইলাপ্রু মার্মা, মানিকছড়ি কলেজ শাখা সাংগঠনিক সম্পাদক প্রদীপ ত্রিপুরা, গুইমারা উপজেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক সন্তোষ চাকমা ও স্বাগত বক্তব্য রাখেন মাটিরাংগা ডিগ্রী কলেজ শাখার অর্থ সম্পাদক সৌরভ ত্রিপুরা প্রমুখ।

কাউন্সিলে বক্তারা অভিযোগ করে বলেন, রাষ্ট্রীয় বাহিনী পার্বত্য চট্টগ্রামকে নিয়ে নানান তালবাহানা করে যাচ্ছে। পাহাড়ি জাতির অস্তিত্বকে ধ্বংস করে দেওয়ার জন্য নামে বেনামে সেখানে চলছে সেনা-বিজিবি-পুলিশের যৌথবাহিনী অভিযান। পাহাড়িদের গ্রামে গ্রামে সেনাবাহিনীর অপারেশন নামে বাড়ি-ঘরে তল্লাশি, ধর্মীয় গুরুদের উপর নির্যাতন, হামলা, রাতের আধারে সাধারণ ছাত্র ও জনগণের বাড়িঘর ঘেরাও করে আটক করে নিয়ে আসার পর শারিরীক নির্যাতন এবং হয়রানিমূলক বিভিন্ন ধরনের মিথ্যা মামলা সাজিয়ে কারাগারে প্রেরণের মত ঘটনা প্রতিনিয়ত ঘটেতেছে। তা পার্বত্য চট্টগ্রামের পাহাড়ি ছাত্র-যুব-নারী সমাজ সহ জনগণ প্রতিবাদ জানালেও সরকার তা কোন আমলে নেয় না।

পাহাড়িদের একটি শ্রেণী নিজের স্বার্থের জন্য সরকার প্রশাসনের গদিতে বসে জুম্ম জাতিকে বিপদগামিতায় ফেলে দিচ্ছে, তাদের উদ্দেশ্য করে হুশিয়ার উচ্চারণ করেন তারা।

বক্তারা অবিলম্বে পার্বত্য চট্টগ্রামে পাহাড়ি জনগণের উপর অন্যায়ভাবে দমন-পীড়ন, ধর-পাকড় ও অপারেশন উত্তরণের নামে হয়রানি বন্ধের দাবি জানান এবং জাতির ক্রান্তিলগ্নে অস্তিত্ব রক্ষার সংগ্রামকে জোরদার করে ঐক্যবদ্ধ আন্দোলন গড়ে তুলতে ছাত্র সমাজের প্রতি আহ্বান জানানো হয়।

পরে কাউন্সিল অধিবেশনে উপস্থিত সকলের সম্মতিক্রমে মোহিনী ত্রিপুরাকে সভাপতি, রূপান্তর ত্রিপুরাকে সাধারণ সম্পাদক ও পলাশ ত্রিপুরাকে সাংগঠনিক সম্পাদক করে ২৫ সদস্য বিশিষ্ট একটি নতুন কমিটি গঠন করা হয়। নতুন কমিটিকে শপথ বাক্য পাঠ করান পিসিপি’র জেলার শাখার অর্থ সম্পাদক জহেল চাকমা।

বার্তা প্রেরক –

বরত জয় ত্রিপুরা
দপ্তর সম্পাদক
পাহাড়ি ছাত্র পরিষদ (পিসিপি)
মাটিরাঙ্গা ডিগ্রী কলেজ শাখা।

খবরটি শেয়ার করুন

Post Comment