লামায় মারমা দম্পত্তি খুনের ঘটনায় দুইজন আটক

লামা রিপোর্ট –

বান্দরবানের লামার ফাঁসিয়াখালীতে সস্ত্রীক ক্যাহ্লাচিং মার্মাকে খুনের ঘটনায় সন্দেহভাজন আসামী হিসেবে ২ পিতা পুত্রকে গ্রেফতার করা হয়েছে। গ্রেফতারকৃতরা হল, পার্শ্ববর্তী বাশঁখাইল্লা ঝিরি নতুন মুসলিম পাড়ার মৃত আমির হামজার ছেলে আব্দুল মালেক (৪৫) ও তার পুত্র আলী হোসেন (২৭)।

এদিকে নিহতের বাড়ি থেকে হত্যার কাজে ব্যবহৃত ছুরি উদ্ধার করেছে পুলিশ। নিহতের পরিবারের লোকজন পুলিশকে জানিয়েছেন হত্যার কাজে ব্যবহৃত ছুরিটি ধুয়ে বলে তারা পারিবারিক কাজে ব্যবহার করছিল।

নিহতের বড় ছেলে উহ্লামং মার্মা (৫০) বাদী হয়ে অজ্ঞাতনামা কয়েকজনকে আসামী করে রবিবার লামা থানায় এজাহার দায়ের করলে পুলিশ মামলাটি রেকর্ড করেন।

বান্দরবান পুলিশ সুপার সঞ্জিত কুমার রায় খুনের ঘটনায় তদন্ত কর্মকর্তাকে সহায়তা করার জন্য ৭ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি গঠন করা করেছেন।

তদন্ত কমিটির প্রধান উপ-পরিদর্শক মাহাবুর জানিয়েছেন, হত্যাকান্ডের ধরন দেখে ধারনা করা হচ্ছে এটি পরিকল্পিত হত্যাকান্ড। মামলার তদন্ত কর্মকর্তা পুলিশের উপ-পরিদর্শক খাইরুল হাসান জানিয়েছেন, সর্বাধিক গুরুত্ব দিয়ে হত্যা কান্ডের মুটিভ উদ্ধারে কাজ করা হচ্ছে।

লামা থানার অফিসার ইনচার্জ আনোয়ার হোসেন জানিয়েছেন, সন্দেহভাজন ২ আসামীকে আদালতে চালান দেয়া হয়েছে।

উল্লেখ্য, গত ২৪ মার্চ শুক্রবার রাতের কোন এক সময় ফাঁসিয়াখালী ইউনিয়নের বনপুর পূর্ব ছোট মার্মা পাড়ায় দুর্বৃত্তদের হাতে খুন হয়েছিলেন সাবেক ইউপি মেম্বার ক্যাহ্লাচিং মার্মা (৭০) ও তার স্ত্রী চিংহ্লামে মার্মা (৬৫)।

নিহতের ছেলে উহ্লামং মার্মা জানিয়েছেন, ময়না তদন্ত শেষে রবিবার দুইজনের লাশ ধর্মীয় নিয়মানুসারে পারিবারিক শশ্মানে নিহতদের দাহ করা হয়েছে।

খবরটি শেয়ার করুন

Post Comment