বরকলে ভূমিধস ও বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের কাছে ত্রাণ বিতরণ

বরকল রিপোর্ট –

রাঙ্গামাটির বরকল উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় ভূমিধস ও বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত প্রায় এক হাজার পরিবারের মাঝে শনিবার (১ জুলাই) সকালে রাঙ্গামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদ হতে খাদ্যশষ্য, শাড়ী, লুঙ্গি, ফলদ চারা ও সেলাই মেশিন বিতরণ করা হয়।

বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সংসদ সদস্য ও সাবেক প্রতিমন্ত্রী দীপংকর তালুকদার ত্রাণ সামগ্রী বিতরণী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন। এ সময় রাঙ্গামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান বৃষ কেতু চাকমা, বরকল বিজিবি হরিণা জোন কমান্ডার লে. কর্ণেল মো. আতিফ, জেলা পরিষদ সদস্য হাজী মো: মুছা মাতব্বর, সবির কুমার চাকমা, বরকল উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান সন্তোষ চাকমা, বরকল উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি (ভা.) ডা. নজরুল, ৪নং ভুষনছড়া ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মামুনুর রশিদ মামুন’সহ গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।

ত্রাণ বিতরণকালে সাবেক প্রতিমন্ত্রী দীপংকর তালুকদার বলেন, দুর্যোগে যে পরিমান ক্ষতি হয়েছে তা পুরণ করতে সময়ের প্রয়োজন, তবে এ সময়ে ক্ষতিগ্রস্তদের পাশে থাকাটাই আসল মনুষ্যত্বের পরিচয়। তিনি বলেন, এখানকার একটি মহল ও বিএনপি নিজেরা দুর্যোগের পর ক্ষতিগ্রস্তদের পাশে না থেকে বর্তমান সরকারকে সমন্বয়হীনতার দোষারোপ করছে। তারা নিজেরাই আজ পর্যন্ত সঠিকভাবে আশ্রয় কেন্দ্রগুলোতে আশ্রিতদের দেখতে বা কোন সহায়তা প্রদান করেনি। তিনি বলেন, দুর্যোগের পরপরই জেলা পরিষদ সকল দুর্যোগপূর্ণ এলাকা পরিদর্শন ও নিহত পরিবারদের নগদ অর্থ এবং ক্ষতিগ্রস্তদের খাবার প্রদান করেছেন। এছাড়া আওয়ামী লীগ ও এর অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীরা ভূমি ধসে মাটিচাপা পড়া লোকজনদের উদ্ধারে প্রশাসনকে সবসময় সর্বাত্মক সহযোগিতা করেছেন। প্রতিদিনই নেতাকর্মীরা আশ্রয়কেন্দ্রে থাকা পরিবারদের খোঁজ খবর নিচ্ছেন। তিনি বলেন, বর্তমান সরকারের প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে যোগাযোগ ব্যবস্থা, বিদ্যুতের উন্নয়ন ঘটেছে। আশ্রয়কেন্দ্রে থাকা পরিবারদের মাঝে নতুন কাপড় প্রদানের পাশাপাশি, স্বাস্থ্য সুরক্ষার জন্য মেডিকেল টিম প্রদান করা হয়েছে। এছাড়া প্রতিদিনই আশ্রয়কেন্দ্রে থাকা পরিবারদের তিনবেলা খাবার প্রদান করা হচ্ছে। শীঘ্রই ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের পুনর্বাসনে বর্তমান সরকার পদক্ষেপ গ্রহণ করবে। এতেই বুঝা যায় পার্বত্যবাসীর প্রতি কোন সরকার আন্তরিক।

পরে অতিথিরা বরকল উপজেলার ছোট হরিণা আমতলা, ভুষণছড়া বাজার, এ্যারাবুনিয়া, বামল্যান্ড ও কলাবুনিয়া’সহ ক্ষতিগ্রস্ত বিভিন্ন এলাকা পরিদর্শন শেষে ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারদের মাঝে ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ করেন।

খবরটি শেয়ার করুন

Post Comment