ত্রিপুরা নারীকে নির্মমভাবে হত্যার ঘটনায় ৫ নারী সংগঠনের নিন্দা ও উদ্বেগ

১৪ সেপ্টেম্বর ২০১৭

প্রেস বিজ্ঞপ্তি –

পার্বত্য চট্টগ্রামের ৫ নারী সংগঠন (হিল উইমেন্স ফেডারেশন, পার্বত্য চট্টগ্রাম নারী সংঘ, সাজেক নারী সমাজ, ঘিলাছড়ি নারী নির্যাতন প্রতিরোধ কমিটি ও নারী আত্মরক্ষা কমিটি) -এর নেতৃবৃন্দ আজ বৃহস্পতিবার (১৪ সেপ্টেম্বর ২০১৭) সংবাদ মাধ্যমে প্রদত্ত এক যুক্ত বিবৃতিতে গত মঙ্গলবার (১২ সেপ্টেম্বর) খাগড়াছড়ির পানছড়িতে বালাতি ত্রিপুরা (৪৫) নামে এক নারীকে নির্মমভাবে কুপিয়ে হত্যার ঘটনায় উদ্বেগ প্রকাশ করে এর তীব্র নিন্দা জানিয়েছেন।

বিবৃতিতে নেতৃবৃন্দ ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, পার্বত্য চট্টগ্রামে নারী ধর্ষণ, হত্যার মতো ঘটনা বৃদ্ধির কারণ হচ্ছে ধর্ষক ও খুনীদের গ্রেপ্তার ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি বা বিচার না হওয়া। প্রতিদিন পত্রিকা খুললে সারাদেশে নারী ও শিশু নির্যাতন, খুনের ঘটনা দেখা যায় এবং এসব ঘটনায় জড়িত ব্যক্তিদের গ্রেপ্তার ও সাজা দেওয়া হয়। কিন্তু পার্বত্য চট্টগ্রামে নারী ও শিশু নির্যাতন, খুনের ঘটনা পত্রিকায় স্থান পায় না এবং ধর্ষক ও খুনিদের শাস্তি দেয়া তো দূরের কথা, গ্রেপ্তারও করা হয় না।

নেতৃবৃন্দ উদ্বেগ প্রকাশ করে বলেন, পার্বত্য চট্টগ্রামে ঘরে-বাইরে নারীদের কোথাও নিরাপত্তা নেই। তার জাজ্বল্যমান উদাহরণ, গত ১০ সেপ্টেম্বর খাগড়াছড়ি সদরের পানখাইয়া পাড়ায় নিজ বাড়ির পাশে সেটলার শাহদাত হোসেন কর্তৃক মারমা তরুণীকে ধর্ষণ ও ১২ সেপ্টেম্বর পানছড়িতে বালতি ত্রিপুরাকে কুপিয়ে হত্যার ঘটনা। কিন্তু এসব ঘটনায় থানায় মামলা দায়ের করা হলেও অভিযুক্তদের পুলিশ এখনো গ্রেপ্তার করেনি। পার্বত্য চট্টগ্রামে এভাবে অনেক ঘটনা আড়ালে থেকে যায় এবং প্রশাসনের ধামাচাপায় মামলাগুলো আলোর মুখ দেখে না।

বিবৃতিতে নেতৃবৃন্দ অবিলম্বে বালাতি ত্রিপুরা হত্যাকারীদের গ্রেফতার ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিসহ পার্বত্য চট্টগ্রাম থেকে সেনা-সেটলার প্রত্যাহার করে নারীর নিরাপত্তা নিশ্চিত করার দাবি জানান।

বিবৃতিতে স্বাক্ষর করেন হিল উইমেন্স ফেডারেশনের সভাপতি নিরূপা চাকমা, পার্বত্য চট্টগ্রাম নারী সংঘের সভাপতি সোনালী চাকমা, সাজেক নারী সমাজের সভাপতি নিরূপা চাকমা(২), ঘিলাছড়ি নারী নির্যাতন প্রতিরোধ কমিটির সভাপতি কাজলী ত্রিপুরা ও নারী আত্মরক্ষা কমিটির আহ্বায়ক এন্টি চাকমা।

বার্তা প্রেরক –

নীতিশোভা চাকমা
দপ্তর সম্পাদক
হিল উইমেন্স ফেডারেশন
কেন্দ্রীয় কমিটি।

খবরটি শেয়ার করুন

Post Comment