নান্যাচর কলেজ কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ায় পিসিপি’র তীব্র নিন্দা

বিবৃতি –

বৃহত্তর পার্বত্য চট্টগ্রাম পাহাড়ি ছাত্র পরিষদ (পিসিপি) শিক্ষা মন্ত্রণালয় কর্তৃক তথাকথিত রাষ্ট্রবিরোধী কর্মকাণ্ডে অংশ গ্রহণের অজুহাতে নান্যাচর কলেজ কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার নির্দেশনা জারি করায় তীব্র নিন্দা ও ক্ষোভ জানিয়েছে। পিসিপি সভাপতি বিনয়ন চাকমা ও সাধারণ সম্পাদক অনিল চাকমা আজ সোমবার ২০ নভেম্বর সংবাদ মাধ্যমে প্রদত্ত বিবৃতিতে এ নিন্দা জানানো হয়।

বিবৃতিতে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের এ ধরনের নির্দেশনাকে চূড়ান্ত রকমের অগণতান্ত্রিক আখ্যায়িত করে নেতৃদ্বয় বলেন, শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে অন্যান্য ছাত্র সংগঠনের মত পিসিপি’রও কার্যক্রম চালানোর অধিকার রয়েছে। কিন্তু পার্বত্য চট্টগ্রামে প্রতিনিয়ত পিসিপি’র ন্যায্য অধিকারের ওপর সেনা-প্রশাসন হস্তক্ষেপ করে চলেছে। নবীন বরণকে কেন্দ্র করে নান্যাচর কলেজ কর্তৃপক্ষের ওপর ব্যবস্থা নেয়ার নির্দেশনা চরম অন্যায় ও অগণতান্ত্রিক। শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের এমন নির্দেশনার মাধ্যমে এটা বুঝতে বাকী থাকে না যে, শিক্ষা মন্ত্রণালয়ও সেনা কর্তৃপক্ষের নির্দেশনা অনুযায়ী পরিচালিত হচ্ছে।

শিক্ষা মন্ত্রণালয় কর্তৃক নবীন বরণ অনুষ্ঠানকে “রাষ্ট্রবিরোধী” আখ্যায়িত করার পরিপ্রেক্ষিতে পিসিপি নেতৃদ্বয় আরো বলেন, শিক্ষা কার্যক্রমের অন্তর্ভুক্ত নবীন বরণের মত একটা অতি সাধারণ অনুষ্ঠানের মধ্যে শিক্ষা মন্ত্রণালয় কীভাবে রাষ্ট্র বিরোধী গন্ধ খুঁজে পায়, তা ভেবে অবাক হতে হয়। এ থেকে সহজে বোঝা যায় যে, শিক্ষা মন্ত্রণালয় পার্বত্য চট্টগ্রামের শিক্ষার্থীদের কয়েদী হিসেবে দেখতে চায়, শিক্ষার্থী হিসেবে মুক্ত বুদ্ধি চর্চা ও সাংষ্কৃতিক কর্মকাণ্ড চালাতে দিতে চায় না।

বিবৃতিতে নেতৃদ্বয় শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে সেনা-প্রশাসনের হস্তক্ষেপ বন্ধ এবং জ্ঞান বিজ্ঞান চর্চা ও সাংস্কৃতি কর্মকাণ্ড পরিচালনার মত সত্যিকার গণতান্ত্রিক পরিবেশ সৃষ্টি করার জন্য সরকারের নিকট জোর দাবি জানান।

উল্লেখ্য, গত ১৭ আগস্টের পিসিপি নান্যাচর কলেজ শাখা নবীন বরণ অনুষ্ঠান আয়োজন করে। এ নবীন বরণকে কেন্দ্র করে শিক্ষা মন্ত্রণালয় গতকাল ১৯ নভেম্বর “সরকার ও রাষ্ট্র বিরোধী কাজে” অংশ নেয়ার তথাকথিত অভিযোগে রাঙ্গামাটির নান্যাচর উপজেলার নান্যাচর কলেজ কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার জন্য মাধ্যমিক ও উচ্চ অধিদফতর (মাউশি) -এর মহাপরিচালককে নির্দেশ দেয়। এছাড়া স্থানীয় প্রশাসনকে কলেজের ওপর নজরদারির নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

বার্তা প্রেরক –

রোনাল চাকমা

দপ্তর সম্পাদক, পিসিপি।

খবরটি শেয়ার করুন

Post Comment