ঢাকায় শ্রমজীবী ফ্রন্ট (পা. চট্টগ্রাম) -এর ১ম জাতীয় সম্মেলন সম্পন্ন

৩ আগস্ট ২০১৮

প্রেস বিজ্ঞপ্তি –

ঢাকায় ১ম জাতীয় সম্মেলনের মধ্য দিয়ে প্রবাসী শ্রমজীবী ফ্রন্ট (পার্বত্য চট্টগ্রাম)-এর নাম পরিবর্তন করে রাখা হয়েছে ইউনাইটেড ওয়ার্কার্স ডেমোক্রেটিক ফ্রন্ট (ইউডব্লিউডিএফ)। সচিব চাকমাকে সভাপতি, মাইকেল চাকমাকে সাধারণ সম্পাদক ও বিজয় চাকমাকে সাংগঠনিক সম্পাদক করে ৩৩ সদস্য বিশিষ্ট একটি কেন্দ্রীয় কমিটি গঠন করা হয়েছে।

আজ ৩ আগস্ট ২০১৮ শুক্রবার বেলায় ২টায় জাতীয় প্রেস ক্লাবের হলরুমে ‘আন্তর্জাতিক’ সঙ্গীত বাজিয়ে সম্মেলন আনুষ্ঠানিকভাবে শুরু হয়। এরপর প্রতিনিধিগণ সম্প্রতি খাগড়াছড়ির দীঘিনালায় প্রাইমারি শিশু কৃত্তিকা ত্রিপুরা, বাস চাপায় নিহত শিক্ষার্থী ও পার্বত্য চট্টগ্রামসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে জনগণের অধিকার আদায়ের সংগ্রামে নিহতদের স্মরণে এক মিনিট নীরবতা পালন করেন।

‘আন্তর্জাতিক’ পরিবেশনের সময় মঞ্চে যুবা-যুবতীদের ১০ সদস্যের একটি টিম মুষ্টিবদ্ধ হাত উঁচিয়ে রেকর্ড প্লেয়ারের সাথে গান করেন। উপস্থিত প্রতিনিধি পর্যবেক্ষকগণও দাঁড়িয়ে মুষ্টিবদ্ধ হাত উঁচিয়ে কণ্ঠ মেলান। এ সময় পুরো হ’লে ঐক্য-সংগ্রামের আবহ তৈরি হয়। উল্লেখ করা যেতে পারে, সকাল ১০টায় শুরু হওয়ার কথা থাকলেও বিভিন্ন এলাকার প্রতিনিধিগণ নির্ধারিত সময়ে পৌঁছতে পারেননি। নিরাপদ সড়কের দাবিতে শিক্ষার্থীদের চলমান আন্দোলনের মুখে যান চলাচলে বিঘ্ন ঘটায় পথে বহু প্রতিবন্ধকতার সম্মুখীন হতে হয়। সময়ের কারণে অনুষ্ঠানও সংক্ষিপ্ত করতে হয়েছে। বহু বাধা পেরিয়ে সম্মেলনে ঢাকার সাভার, আদমজী, আশুলিয়া, কাঁচপুর, নারায়ণগঞ্জ, গাউছিয়া এবং কুমিল্লা ও চট্টগ্রামের বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে কর্মরত প্রায় তিন শতাধিক শ্রমজীবী নারী পুরুষ ব্যাপক উৎসাহ উদ্দীপনা নিয়ে অংশ গ্রহণ করেন।

শ্রমজীবী ফ্রন্টের জাতীয় সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটির যুগ্ম-আহ্বায়ক নিরূপা চাকমার সভাপতিত্বে এতে বক্তব্য রাখেন জাতীয় মুক্তি কাউন্সিলের সাধারণ সম্পাদক ফয়জুল হাকিম, ইউনাইটেড পিপলস ডেমোক্রেটিক ফ্রন্ট (ইউপিডিএফ) এর কেন্দ্রীয় সদস্য নতুন কুমার চাকমা, বৃহত্তর পার্বত্য চট্টগ্রাম পাহাড়ি ছাত্র পরিষদ (পিসিপি) কেন্দ্রীয় সভাপতি বিনয়ন চাকমা, গণতান্ত্রিক যুব ফোরাম (ডিওয়াইএফ) কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক জিকো ত্রিপুরা, হিল উইমেন্স ফেডারেশনের কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক মন্টি চাকমা, শ্রমজীবী ফ্রন্ট-এর সাভার শাখার সভাপতি প্রমোদ জ্যোতি চাকমা, বাংলাদেশ ট্রেড ইউনিয়ন ফেডারেশনের সদস্য দেলোয়ার হোসেন, শ্রমজীবী ফ্রন্টের চট্টগ্রাম শাখার সদস্য রাসেল চাকমা ও কুমিল্লা শাখার সদস্য রনেল চাকমা। অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন সাভার শ্রমজীবী ফ্রন্টের সাধারণ সম্পাদক কণক চাকমা।

সম্মেলনে জাতীয় মুক্তি কাউন্সিলের সাধারণ সম্পাদক ফয়জুল হাকিম শ্রমজীবী ফ্রন্টের সাফল্য কামনা করে বলেন, যে জাতি সংখ্যালঘু জাতিসত্তাসমূহের ওপর শোষণ করে প্রকৃতপক্ষে তারাও স্বাধীন নয়। পার্বত্য চট্টগ্রামসহ সারা বাংলাদেশে ৪৫টিরও বেশি নানা ভাষাভাষীর সংখ্যালঘু জাতি রয়েছে। কিন্তু দুঃখের বিষয় বর্তমান ফ্যাসিবাদি সরকার এই সকল জাতিসমূহের ন্যুনতম বেঁচে থাকার অধিকার নিয়েও উদাসীন।

তিনি আরও বলেন, সরকার প্রধানত দুই শ্রেণীর ওপরই শোষণ, নির্যাতন ও জাতিগত নিপীড়নের খড়গ চালায়। তার মধ্যে এক হচ্ছে সংখ্যালঘু, আর দুই হলো শ্রমিক শ্রেণী। তিনি বলেন, সরকারের ফ্যাসিবাদী আচরণ এবং শোষণ-নিপীড়ন হতে মুক্তির জন্য পাহাড় ও সমতলের সকল শ্রমজীবী জনগণকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে লড়াই সংগ্রাম চালিয়ে যেতে হবে।

পিসিপি’র কেন্দ্রীয় সভাপতি বিনয়ন চাকমা বলেন, জাতীয় সম্মেলনের মধ্য দিয়ে শোষিত, নিপীড়িত জনগণের অধিকার প্রতিষ্ঠার সংগ্রামে যুক্ত হতে যাচ্ছে আরেকটি লড়াকু সংগঠন শ্রমজীবী ফ্রন্ট (পার্বত্য চট্টগ্রাম)। পার্বত্য চট্টগ্রামসহ সারা দেশে নির্যাতিত জনগণের অধিকার প্রতিষ্ঠার আন্দোলনে পাহাড় এবং সমতলে সকল শ্রমজীবী জনগণকে ঐক্যবদ্ধ করে লড়াই সংগ্রাম চালিয়ে নেয়ার এই সংগঠনটির ভূমিকা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ।

এইচডব্লিউএফের সাধারণ সম্পাদক মন্টি চাকমা শ্রমজীবী ফ্রন্টের সফলতা কামনা করে বলেন, জাতীয় অস্তিত্ব রক্ষাসহ সকল আন্দোলনে সকল শ্রমজীবী এবং পেশাজীবী নারীদের অংশ গ্রহণের প্রয়োজনীয়তা রয়েছে। নারী সমাজ এগিয়ে আসলে কোন আন্দোলন মাঝপথে থেমে থাকবে না। তাই শ্রমজীবী ফ্রন্টসহ সকল সংগঠনে পুরুষের পাশাপাশি নারীদের স্বতঃস্ফূর্ত অংশ গ্রহণ করার জন্য আহ্বান জানান তিনি।

বাংলাদেশ ট্রেড ইউনিয়ন ফেডারেশনের সদস্য দেলোয়ার হোসেন সকল শ্রমজীবী মানুষকে নিজ প্রতিষ্ঠানের সকল শ্রমিকদের সচেতন করাসহ ন্যূনতম অধিকার প্রতিষ্ঠার সংগ্রামে উদ্বুব্ধ করে আন্দোলন জোরদার করার আহ্বান জানান।

আলোচনা শেষে শ্রমজীবী ফ্রন্ট সাভার শাখার সভাপতি প্রমোদ জ্যোতি চাকমা সংগঠনের নতুন নাম ইউনাইটেড ওয়ার্কার্স ডেমোক্রেটিক ফ্রন্ট (ইউডব্লিউডিএফ) প্রস্তাব করলে তা সর্বসম্মতিক্রমে গৃহীত হয়। পরে তিনি সচিব চাকমাকে সভাপতি, মাইকেল চাকমাকে সাধারণ সম্পাদক এবং বিজয় চাকমাকে সাংগঠনিক সম্পাদক করে ৩৩ সদস্য বিশিষ্ট কেন্দ্রীয় কমিটি হাউজে উপস্থাপন করেন। উপস্থিত সকলে তুমুল করতালির মধ্য দিয়ে নতুন কমিটিকে অনুমোদন দেন।

সম্মেলন শেষে শেষে বিকালে একটি র‌্যালি বের করা হয়। র‌্যালিটি প্রেস ক্লাবের সামনে থেকে হাইকোর্ট চত্ত্বর হয়ে পল্টন মোড় প্রদক্ষিণ করে পুনরায় প্রেস ক্লাব গেইটে এসে শেষ হয়।

বার্তা প্রেরক –

মাইকেল চাকমা
সাধারণ সম্পাদক
ইউনাইটেড ওয়ার্কার্স ডেমোক্রেটিক ফ্রন্ট (ইউব্লিউডিএফ)
কেন্দ্রীয় কমিটি।

খবরটি শেয়ার করুন

Post Comment