মহান শিক্ষা দিবস উপলক্ষে লক্ষীছড়িতে পিসিপি’র বিক্ষোভ সমাবেশ

১০ সেপ্টেম্বর ২০১৮

প্রেস বিজ্ঞপ্তি –

শিক্ষা দিবস উপলক্ষে খাগড়াছড়ির লক্ষীছড়ি উপজেলায় বিক্ষোভ সমাবেশ করেছে বৃহত্তর পার্বত্য চট্টগ্রাম পাহাড়ি ছাত্র পরিষদ (পিসিপি) লক্ষীছড়ি উপজেলা শাখা।

সকল জাতিসত্তা সমূহের ন্যায্য কোটা বাদ দেয়ার ষড়যন্ত্র বন্ধ কর! পিসিপি নেতা তপন-এল্টন গনতান্ত্রিক যুব ফোরামের নেতা পলাশ চাকমাসহ ৭ জনের হত্যাকারী জেএসএস (সংস্কার) ও নব্য মুখোশ সন্ত্রাসীদের গ্রেফতার এবং তাদের মদদদাতা সেনা প্রশাসনের কর্মকর্তাদের শাস্তির দাবি জানিয়ে আজ সোমবার (১০ সেপ্টম্বর ২০১৮) সকাল ১১ টায় লক্ষীছড়ি সদর এলাকায় অনুষ্ঠিত বিক্ষোভ সমাবেশের পিসিপি’র লক্ষীছড়ি থানা শাখার সাধারণ সম্পাদক নয়ন চাকমার সভাপতিত্বে ও সাংগঠনিক সম্পাদক পাইসুই মং মারমা সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন পিসিপি খাগড়াছড়ি জেলা শাখা সাংগঠনিক সম্পাদক নিকেল চাকমা, ফটিকছড়ি উপজেলা শাখার ভারপ্রাপ্ত সভাপতি অমিত চাকমা ও গণতান্ত্রিক যুব ফোরামের লক্ষীছড়ি থানা শাখা সাধারণ সম্পাদক ক্যামরন দেওয়ান প্রমুখ।

সমাবেশে বক্তারা অভিযোগ করে বলেন, পার্বত্য চট্টগ্রামের সেনাশাসন বলবৎ রেখে পাহাড়ি জনগণের উপর দমন পীড়ন ও হত্যাকান্ড চালাচ্ছে। সেনা-প্রশাসনের মদদে সংস্কার-নব্য মুখোশ বাহিনীর সন্ত্রাসীরা সশস্ত্র অবস্থায় গিয়ে খাগড়াছড়ি জেলা শহর স্বনির্ভর বাজারে হামলা চালিয়ে পিসিপি নেতা তপন, এল্টন ও যুব ফোরামের নেতা পলাশ চাকমাসহ পৃথক দুইটি ঘটনায় ৭জনকে গুলি করে হত্যা করেছে। হত্যাকান্ডের ঘটনায় এক মাসের কাছাকাছি হলেও সন্ত্রাসীদের গ্রেফতারে পুলিশ প্রশাসন তথা সরকার ব্যর্থ হয়েছে।

সমাবেশে বক্তারা সেনা-প্রশাসনের মদদে নিরাপত্তা বেষ্টনিতে স্বনির্ভর ও পেরাছড়া হত্যাকান্ডের ঘটনায় তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানান।

তারা আরো অভিযোগ করে বলেন, সরকার ২০১১ সালে পঞ্চদশ সংশোধনীতে দেশের ক্ষুদ্র ক্ষুদ্র জাতিসত্তাসমূহকে বাঙালি চাপিয়ে দিয়েছিল। পাহাড়ে পাহাড়ি জাতিসত্তাসমূহসহ দেশের সকল জাতিসত্তার উচ্চ শিক্ষা ও চাকুরি লাভসহ কোটা ভিত্তিক বিভিন্ন সুযোগ সুবিধা থেকে বঞ্চিত করতে নতুন করে সরকার ষড়যন্ত্র করছে এবং বাতিল করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। এরই মধ্যে দিয়ে বর্তমান আওয়ামী লীগ সরকার জাতীয় বৈষম্য নীতি ও সাম্প্রদায়িক রূপ উন্মোচিত হয়েছে।

বক্তারা, নিজেদের ন্যায্য দাবি আদায়ের লক্ষ্যে ঐক্যবদ্ধ হয়ে আন্দোলন জোরদার করতে ছাত্র সমাজের প্রতি আহ্বান জানান এবং অবিলম্বে সকল জাতিসত্তার জন্য ন্যায্য কোটা বহাল, ছাত্র নেতা তপন এল্টন, যুব নেতা পলাশ চাকমাসহ ৭ জন হত্যাকারীদের গ্রেফতার করে ও সন্ত্রাসীদের মদদদাতা সেনা-প্রশাসনের কর্মকর্তাদের দৃষ্টান্ত মূলক শাস্তির দাবি জানান।

বার্তা প্রেরক –

পাইসুই মং মারমা

সাংগঠনিক সম্পাদক

পাহাড়ি ছাত্র পরিষদ (পিসিপি)

লক্ষীছড়ি উপজেলা শাখা।

খবরটি শেয়ার করুন

Post Comment