বান্দরবানে আ’লীগ নেতা হত্যা, ১৩ জনের বিরুদ্ধে মামলা

বান্দরবান রিপোর্ট –

বান্দরবানে আওয়ামী লীগ নেতা ও সাবেক পৌর কাউন্সিলর চথোয়াই মং মারমা হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় পার্বত্য চট্টগ্রাম জন সংহতি সমিতি (জেএসএস) এর কেন্দ্রীয় সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক কে এস মং মারমাসহ ১৩ জন এবং অজ্ঞাত আরও ১৫ জনের বিরুদ্ধে হত্যা মামলা দায়ের করা হয়েছে।

আসামীদের মধ্যে কেন্দ্রীয় সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক কে এস মং এবং জনসংহতি সমিতির জেলা সাধারণ সম্পাদক ক্যবামং মারমাকে আদালতের নির্দেশে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে।

রোববার (২৬ মে) সন্ধ্যায় মামলা দায়েরের পর আদালতের নির্দেশে তাদেরকে কারাগারে পাঠানো হয়।

মামলার অন্যান্য আসামীরা হলেন- জেলা জেএসএস সভাপতি উছোমং মারমা, জেএসএস নেতা পাইনু মং মারমা, চসাথোয়াই মারমা, অংশৈ মং, অংথোয়াই চিং, বাচিং মং মারমা, খ্যইপাই মারমা, রাংথনসান বম, নিত্যলাল চাকমা, উছোসিং ও সুজন চাকমা।

পুলিশ জানায়, আওয়ামী লীগ নেতা চথোয়াই মং মারমাকে অপহরণের পর হত্যার ঘটনায় তার স্ত্রী মেসাচিং মারমা বাদী হয়ে সদর থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।  এ মামলায় পার্বত্য চট্টগ্রাম সংহতি সমিতি (জেএসএস) এর ১৩ নেতাসহ অজ্ঞাত ১৫ জনকে আসামী করা হয়েছে।

নিহতের স্ত্রীর দায়ের করা মামলায় কারাগারের নির্দেশে দুজনকে সন্ধ্যায় কারাগারে পাঠানো হয়েছে। অন্যান্য আসামীদের গ্রেফতারের চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে বলে পুলিশ সূত্রে জানা যায়।

খবরটি শেয়ার করুন

Post Comment