বিলাইছড়ির বন্যাদুর্গত এলাকায় দীপংকর তালুকদারের ত্রাণ বিতরণ

রাঙ্গামাটি রিপোর্ট –

বিলাইছড়ির ফারুয়া বাজার স্থানান্তরের বিষয়ে বন বিভাগের সাথে আলোচনা করা হবে বলে জানিয়েছেন রাঙ্গামাটির সংসদ সদস্য দীপংকর তালুকদার। তিনি বলেন, ফারুয়া পুরো এলাকা হচ্ছে রিজার্ভ ফরেষ্ট। ফরেষ্ট বিভাগের অনুমতি সাপেক্ষে স্থানান্তরের বিষয়ে উদ্যোগ নিতে হবে। তিনি বলেন, এই বিষয়ে যেখানে যেখানে যাওয়া দরকার আমার পক্ষ থেকে তা করা হবে।

বৃহস্পতিবার (১৮ জুলাই) রাঙ্গামাটি বিলাইছড়ি উপজেলার বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত এলাকা পরিদর্শন কালে ব্যবসায়ীদের দাবীর পরিপ্রেক্ষিতে রাঙ্গামাটি সংসদ সদস্য দীপংকর তালুকদার এ কথা বলেন।

এ সময় রাঙ্গামাটি জেলা পরিষদ সদস্য রেমলিয়ানা পাংখোয়া, রাঙ্গামাটি জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি রুহুল আমিন, সআংগঠনিক সম্পাদক জ্যোতিময় চাকমা, বন ও পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক অভয় প্রকাশ চাকমা, ৩ নং ফারুয়া ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান বিদ্যালাল চাকমা, থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো: পারভেজ, বিলাইছড়ি উপজেলার পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান জয় সেন তঞ্চঙ্গ্যা, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মো: সাইদুলসহ উপজেলা আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

বিলাইছড়ি উপজেলার ক্ষতিগ্রস্ত এলাকা ঘুরে ঘুরে দেখেন এবং ক্ষতিগ্রস্ত লোকজনের সাথে কথা বলেন। ক্ষতিগ্রস্তদের তিনি সান্ত্বনা দিয়ে বলেন, যার যা যে ক্ষতি হয়েছে তা আমাদের পক্ষে পূরণ করা সম্ভব নয়। নিজেদেরকে কষ্ট করে আবারো আপনাদের হারানো সম্পদ অর্জন করতে হবে। আমরা আপনাদের পাশে দাঁড়ানোর জন্য এসেছি। তাৎক্ষনিক যতটুকু আমাদের হাতে ছিলো তা নিয়ে আপনাদের পাশে এসে দাঁড়িয়েছি। আগামীতেও বরাদ্দ আসবে আপনাদের কাছে আমরা পৌছে দিবো।

পরে তিনি ফারুয়া ইউনিয়নের ৬ শত পরিবারের মাঝে খাদ্য শস্য তুলে দেন। পরে বিলাইছড়ি বাজারের ১০০ পরিবার এবং কেংড়াছড়ি ইউনিয়নে ১০০ পরিবারের মাঝে খাদ্যশস্য তুলে দেন। এ সময় রেড ক্রিসেন্ট ইউনিট, জেলা প্রশাসন এর পক্ষ থেকে ক্ষতিগ্রস্থদের জন্য দেয়া বিভিন্ন ত্রাণ সামগ্রীও বিতরণ করেন সংসদ সদস্য দীপংকর তালুকদার।

এর আগের দিন ১৭ জুলাই ২০১৯ বুধবার দীপংকর তালুকদার এমপি বরকল উপজেলার বন্যাদুর্গত এলাকায় গিয়ে একইভাবে ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ করেন।

খবরটি শেয়ার করুন

Post Comment