দক্ষ জনবল তৈরির লক্ষ্যে রাঙ্গামাটিতে আলোচনা সভা

রাঙ্গামাটি রিপোর্ট –


পার্বত্য জেলার শিক্ষিত বেকার যুবদের প্রশিক্ষণ প্রদানের মাধ্যমে দক্ষ করে জাপানে কর্ম সংস্থানের লক্ষ্যে ইউনিভার্সেল মেডিকেল এন্ড টেকনিক্যাল ট্রেনিং ইনষ্টিটিউটের পরিচালক রাঙ্গামাটির বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ প্রতিষ্ঠান প্রধানদের সাথে এক আলোচনা সভায় মিলিত হন।

বুধবার (২৫সেপ্টেম্বর) রাঙ্গামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদ সভাকক্ষে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব সালমা আক্তার জাহান, রাঙ্গামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান বৃষ কেতু চাকমা, ইউনিভার্সেল মেডিকেল এন্ড টেকনিক্যাল ট্রেনিং ইনষ্টিটিউটের পরিচালক প্রীতি চক্রবর্ত্তী, পার্বত্য চট্টগ্রাম আঞ্চলিক পরিষদের সদস্য সাথোয়াই প্রু মারমা, পরিষদের মুখ্য নির্বাহী কর্মকর্তা ছাদেক আহমদ, পরিষদের নির্বাহী কর্মকর্তা দাউদ হোসেন চৌধুরী, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো: আব্দুল আউয়াল’সহ জেলার গুরুত্বপূর্ণ প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তাগণ উপস্থিত ছিলেন।

আলোচনা সভায় ইউনিভার্সেল মেডিকেল এন্ড টেকনিক্যাল ট্রেনিং ইনষ্টিটিউটের পরিচালক প্রীতি চক্রবর্ত্তী জানান, জনশক্তি কর্মসংস্থান ও প্রশিক্ষণ ব্যুরো এবং ইউনিভার্সেল মেডিকেল এন্ড টেকনিক্যাল ট্রেনিং ইনষ্টিটিউট “কেয়ারগিভার” প্রোগ্রামটির মাধ্যমে জাপানে দক্ষ জনবল প্রেরণের লক্ষ্যে সারা দেশের ন্যায় তিন পার্বত্য জেলা থেকেও শিক্ষিত বেকার যুবদের জাপানি ভাষা ও নার্সিং, মেডিকেল টেকনোলজির উপর দক্ষ করে সরকারিভাবে জাপানে চাকুরি পাওয়ার নিশ্চয়তা দেবে। তাই যে সকল আগ্রহী বেকার যুব রয়েছে তাদের বিনামূল্যে ইউনিভার্সেল মেডিকেল এন্ড টেকনিক্যাল ট্রেনিং ইনষ্টিটিউট হতে নার্সিং, মেডিকেল টেকনোলজির উপর প্রশিক্ষণ প্রদান করা হবে। কোর্সটি সম্পূর্ণ হলে জনশক্তি কর্মসংস্থান ও প্রশিক্ষণ ব্যুরো সরকারি খরচে সেই প্রশিক্ষিত কর্মিকে জাপানে প্রেরণ করবে। জাপানে প্রশিক্ষিত কর্মীর বেতন বাংলাদেশের অর্থ অনুসারে প্রায় দেড়লক্ষ টাকা পাওয়া যাবে। তিনি বলেন, একজন প্রশিক্ষিত কর্মী বছরে একবার দেশে আসার সুযোগ পাবে এবং ৫ বছর যদি নিষ্ঠার সাথে জাপানে কাজ করে থাকে তাহলে সিটিজেনশিপ পাবে এবং পরবর্তীতে দেশ থেকে পরিবার নিয়ে সেখানে বসবাস করতে পারবে। তিনি এ প্রশিক্ষণকে আরো সহজতর করতে জেলার টেকনিক্যাল ট্রেনিং সেন্টারে (টিটিসি) প্রদত্ত জাপানি ভাষার উপর দেওয়া কোর্সটি সম্পন্ন করে তার ইনস্টিটিউটে যাওয়ারও পরামর্শ দেন। তিনি এ বিষয়ে পার্বত্য মন্ত্রণালয় ও পার্বত্য জেলা পরিষদের সর্বাত্মক সহযোগিতা কামনা করেন।

অনুষ্ঠানে রাঙ্গামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান বৃষ কেতু চাকমা বলেন, জনশক্তি কর্মসংস্থান ও প্রশিক্ষণ ব্যুরো এবং ইউনিভার্সেল মেডিকেল এন্ড টেকনিক্যাল ট্রেনিং ইনষ্টিটিউট যে মহৎ উদ্যোগটি গ্রহণ করেছে তাতে করে এখানকার অনেক বেকার যুব জাপানে যাওয়ার সুযোগ পাবে। তিনি এ বিষয়ে পরিষদ হতে সর্বাত্মক সহযোগিতা প্রদানের আশ্বাস দেন এবং এ বিষয়টি জেলা উপজেলার প্রত্যন্ত এলাকায় ছড়িতে দিতে উপস্থিত প্রতিষ্ঠান প্রধানদের আহ্বান জানান।

খবরটি শেয়ার করুন

Post Comment